Posts Tagged ‘স্মৃতিচারণ’


লিখেছেন: মহসিন শস্ত্রপাণি

matin-bairagiদীর্ঘদিন ধরে পথচলার সাথী কবি মতিন বৈরাগীর সত্তর বছরে যাত্রা উপলক্ষে অজস্র শুভেচ্ছা জানাই। তিনি পৃথিবীর আলোহাওয়ায় নিঃশ্বাস নিয়ে চোখ মেলে তীক্ষ্ণ চিৎকার দিয়েছিলেন বরগুনার লাকুরতলা গ্রামে, ১৯৪৬ সালের ১৬ নভেম্বর। তিনি কবিতাপ্রেমে একগ্রতার সাথে মগ্ন আছেন কৈশোরকাল থেকেই এবং নিশ্চিতভাবেই বলা যায় মগ্ন থাকবেন। অন্য কোনো বিষয়ে তাঁর প্রেম এতো গভীর ও অনড় নয়। জীবনের নানা আঘাত ও সংকটে তাঁর কবিতাপ্রেম এতোটুকু টলেনি। দুএকটা ছোট গল্প ও সামান্য কিছু গদ্য রচনায় মন দিলেও কবিতাই তাঁর সব। কবিতার সঙ্গে জীবনযাপনে তাঁর যতো সুখ, যতো আনন্দ। (বিস্তারিত…)

Advertisements

লিখেছেন: স্বপন মাঝি

artworks-034সমতাকে (সাম্যবাদী আন্দোলনের সংগঠক সত্যেন্দ্রনাথ রায়ের মেয়ে) পড়াতাম। ওর কাছেই খবর পাই উন্মেষের। সমতা বলছিল, ওখানে গিয়ে, আমি আমার লেখা পাঠ করতে পারব। লেখার চেষ্টা সক্রিয় ছিল, প্রকাশ ছিল না। লেখা হচ্ছে কিনা, যাচাই করিনি, ভয়ে। সমতার কথায় একদিন তার বাবাকে বললাম, উন্মেষে নিয়ে যাবার জন্য। তিনি নিয়ে গেলেন। একে একে পরিচয় হল, মহসিন শস্ত্রপাণি, (সমতার মুখে শুনে শুনে একটা ভয় আগে থেকেই তৈরী হয়ে ছিল।) মতিন বৈরাগী, মুনীর সিরাজ, সমুদ্র গুপ্ত, সৈয়দ তারিক, মঞ্জুর সামস, কাজী মনজুর, কফিল আহমেদ, আমিন (হায়, পুরো নাম মনে নেই, উনি মারা গেছেন; সেকারণে হয়তবা।) আশরার মাসুদ, সুনীল শীলের সাথে। (বিস্তারিত…)