Posts Tagged ‘শাসক শ্রেণী’


লিখেছেন: ফারুক আহমেদ

national-flag১৯৭১ সালের ১৬ ডেসেম্বরের আগে এই জনপদের মানুষের লড়াই ছিল বিদেশী লুন্ঠক, শোষকদের বিরূদ্ধে। বিদেশী সাংষ্কৃতিক আধিপত্যের বিরূদ্ধে। লড়াই ছিল নিজস্ব সংষ্কৃতি নির্মাণে নিজস্ব একটি ভুখন্ডের জন্য। ২৪ বছরের লড়াই সংগামের মধ্যদিয়ে ১৯৭১ সালে চূড়ান্ত লড়াইয়ে এই জনপদ থেকে বিদেশীদের শাসনের আবসান ঘটেছিল। মূল্য দিতে হয়েছিল। ত্রিশ লক্ষ মানুষকে জীবন দিতে হয়েছিল। আড়াই লক্ষ নারীকে পাষন্ডিক নির্যাতনের শিকা্র হতে হয়েছিল। অসংখ্য মানুষকে গৃহহারা, সম্পদ হারা হতে হয়েছিল। (বিস্তারিত…)

Advertisements

লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

election-2013ভারতীয় উপমহাদেশে সংসদীয় রাজনীতির সূচনা হয় ঔপনিবেশিক বৃটিশ শাসকদের হাত ধরে। মূলত কোম্পানি ও রাণীর শাসন মিলিয়ে পুরো সময়জুড়ে সিপাহী বিপ্লব, ফকিরসন্ন্যাসী বিদ্রোহ, তিতুমীরের আন্দোলন, নীল বিদ্রোহ প্রভৃতি থেকে শুরু করে আরো বিভিন্ন আন্দোলনসংগ্রামের প্রেক্ষিতে শাসক গোষ্ঠী বুঝতে পারে যে কেবল নিপীড়ন চালিয়ে, চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের মাধ্যমে ভূমিস্বার্থকেন্দ্রিক একটি দালাল গোষ্ঠী তৈরি করে এই বিশাল ভূখণ্ডের সকল জনগণের ওপর দীর্ঘ শাসন টিকিয়ে রাখা সম্ভব নয়। (বিস্তারিত…)


dabanol-1দেশ এক অন্তহীন সংকটে প্রবাহমান। বাংলাদেশ নামক এই মৃত্যু উপত্যকায় কৃষকশ্রমিক ও শ্রমজীবি মানুষের রক্ত ঝরছে অবিরাম। লুটপাটকারি শাসকগোষ্ঠীর সর্বগ্রাসি ক্ষুধায় ধ্বংস হচ্ছে আমাদের জীবন, সংস্কৃতি প্রকৃতি ও সম্পদ। লুটের বিশাল সম্পদের বেশির ভাগটাকে ভোগের জন্য শাসকগোষ্ঠীর ভেতরে হিংস্রতার কামড়াকামড়ি বিদ্যমান। এই কামড়ে লুটেরেরা যতোটা না পরস্পর পরস্পরকে রক্তাক্ত করছে তার চেয়েও অনেক বেশি রক্তাক্ত হচেছ একটি সুন্দর স্বপ্ন নির্মাণের সংগ্রামে জড়িত কৃষকশ্রমিক ও শ্রমজীবি সাধারণ মানুষেরা। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

OLYMPUS DIGITAL CAMERA২০০৬ সালে বৃটিশ মালিকানাধীন গ্লোবাল কোল ম্যানেজমেন্ট (জিসিএম) রিসোর্সেসএর স্থানীয় প্রতিষ্ঠান এশিয়া অ্যানার্জি কর্তৃক দিনাজপুরের ফুলবাড়িতে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলনের প্রচেষ্টার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর সম্মিলিত প্রতিরোধ এক নতুন রূপ পরিগ্রহ করে। তৎকালীন বিএনপি সরকারের সাথে সমঝোতার মাধ্যমেই এশিয়া অ্যানার্জি পরিবেশবিধ্বংসী এই প্রকল্প বাস্তবায়নের চক্রান্ত করেছিল। সে সময় সমগ্র ফুলবাড়ির জনগণ এই চক্রান্ত প্রতিরোধের জন্য যে ভূমিকা গ্রহণ করেন, তা এদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ক্ষেত্রে এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে আছে। ঐ বছরের ২৬ আগস্ট প্রতিবাদী মিছিলে তৎকালীন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী গুলি চালালে আমিনুল, তরিকুল ও সালেকীন নামে তিনজন তরুণ নিহত হন। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: বাধন অধিকারী

farhad-mazhar-6একুশে টেলিভিশনের এক টক শোতে ফরহাদ মজহারের গণমাধ্যম সংক্রান্ত বক্তব্য এই লেখার প্রেরণা। কদিন আগে ‘একুশের রাত’ নামের ওই আলোচনায়, একাত্তর টেলিভিশনে পিকেটারদের হামলার প্রেক্ষাপটে সঞ্চালক আলাপ তুললে, রাজনীতিক কাজী ফিরোজ রশীদ এবং চিন্তক ফরহাদ মজহার এ নিয়ে নিজেদের অবস্থান জানান। কাজী ফিরোজ, হামলার বিরোধীতা করে সঞ্চালককে উদ্দেশ্য করে বলেন, তাদের মানে গণমাধ্যম সংশ্লিষ্টদের দায়িত্বশীল হতে হবে আরও। একপক্ষীয় অবস্থান নেয়া যাবে না। নাহলে হামলার ঘটনা এড়ানো যাবে না। অন্যদিকে ফরহাদ মজহারের কিছু সুনির্দিষ্ট গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগ ছিলো গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: শাহেরীন আরাফাত

আমজনতা

amjonotaদিনকে বানাও রাত তোমরা, রাতকে বানাও দিন

যতই হাসি, যতই কাঁদি, সবই অর্থহীন

নতুন নতুন নিয়ম বানাও, আমরা ভাঙবো বলে

নতুন চিন্তা ভাবতে গেলেই ভরবে মোদের সেল এ

 

অতীত এর সব হিসেব নিকেশ, ভবিষ্যতের মূলা

ধর্মটাকে নেড়েচেড়ে দিচ্ছ চোখে ধুলা

রামগরুড়ের ছানার ছিল হাসতে শুধু মানা

আমরা আজ করবোটা কি, সেটাও অজানা (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

hasina-manmohanভারতের Indian Express পত্রিকার সম্পাদক শেখর গুপ্ত’র National Interest: Dear Narendrabhai শীর্ষক একটি নিবন্ধ গত ৩১ অগাস্ট পত্রিকাটিতে প্রকাশিত হয়েছে। নরেন্দ্র মোদিকে প্রিয় নরেন্দ্র ভাইহিসেবে সম্বোধন করে তার কাছে খোলা চিঠি আকারে লেখা নিবন্ধটিতে যে কথাগুলো বলা হয়েছে সেটা মোটা দাগে একটি সাম্রাজ্যবাদী রাষ্ট্র হিসেবে ভারতের বৃহৎ পুঁজির স্বার্থের প্রতিনিধি সে দেশের শাসক শ্রেণী তার আশপাশের প্রতিবেশী দেশগুলো সম্পর্কে যে দৃষ্টিভঙ্গি ধারণ ও বক্তব্যসমূহ প্রদান করে থাকে তার থেকে ব্যতিক্রম কিছু নয়। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

rab-রাষ্ট্রীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক গত রাতে মিল্কিহত্যার প্রধান সন্দেহভাজন আসামির ভবলীলা সাঙ্গ হওয়ার পর আজ যারা বলছেন “তারেককে খুন করা র‌্যাবের উচিত হয় নি” তারা হচ্ছেন এমন সব ব্যক্তি যারা র‌্যাবের কাছ থেকে ‘ইতিবাচক’ কিছু আশা করেন। এই ভদ্রলোকগণ শ্রেণীগতভাবে জনগণের শিক্ষিত মধ্যবিত্ত অংশের প্রতিনিধি, যারা মনে করেন বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে দেশে ‘শান্তি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব’। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

us-aggressionএকটি জাতির স্বাধীনতার সংগ্রাম কিংবা আগ্রাসনবিরোধী লড়াইয়ে আরেকটি রাষ্ট্রের সহযোগিতা গ্রহণ বিরল কোনো দৃষ্টান্ত নয়, বরং ইতিহাসে এর উদাহরণ ভুরি ভুরি। চিয়াং কাইশেকের সরকারের বিরুদ্ধে চীনা বিপ্লবে যেমন সোভিয়েত ইউনিয়নের সাহায্য নেয়া হয়েছিল তেমনি ভিয়েতনামে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে ভিয়েতকংয়ের নেতৃত্বে গেরিলা লড়াইয়ে পাওয়া গিয়েছিল গণচীনের সহযোগিতা। এছাড়া সারা বিশ্বেই বিপ্লব ও রাজনৈতিক সংগ্রাম পরিচালিত হয়ে থাকে সে দেশের আপন ভূমিতে বসেই। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: জাহেদ সরওয়ার

Crossfireন্যায় হচ্ছে শক্তিমানের স্বার্থ’ প্লাতনের রিপাবলিক কিতাবের প্রথম পুস্তকের তর্কিত এজেণ্ডাসমূহের একটি। এর আগে পলিমারকাসের ‘ন্যায় হচ্ছে দোস্তের লগে দোস্তামি আর দুশমনের লগে দুশমনি’এই যুক্তিকে সক্রাতেস কতৃক ধূলিসাৎ করা ও পলিমারকাসের পরাজয় স্বীকার করার পর থ্রাসিমেকাস এই প্রস্তাবনা উপস্থাপন করেন। থ্রাসিমেকাসের মতে ‘ন্যায়’, ‘অন্যায়’ এই শব্দসমূহ শক্তিমান তথা শাসকদের তৈরি। প্লাতনিয় থ্রাসিমেকাস আরো বলেন, ন্যায় হচ্ছে দুর্বলকে শোষণ করার জন্য শক্তিমানের কৌশল অথবা শক্তিমানকে পরাজিত করার জন্য দুর্বলের জোট। জনগণ যুক্তির মাধ্যমে এই ধরনের জোট করেছে তা নয়, শক্তিমান তার নীতি জনগণের উপর চাপিয়ে দেয়ার ফলে এই জোটের জন্ম। (বিস্তারিত…)