Posts Tagged ‘নেসার আহমেদ’


(নেসার আহমেদের সাক্ষাৎকারভিত্তিক গ্রন্থ ক্রসফায়ার রাষ্ট্রের রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড থেকে)

জামিলা আক্তার

নেসার : আপনার নামটা আগে বলুন।

জামিলা : জামিলা আক্তার। আমার বড় ভাই ছিলেন। আমরা দাদা বলতাম। উনি আমাদের পরিবারের সবাইকে ভীষণ আদর করতেন।

নেসার : আপনার বড় ভাইয়ের নামটা বলুন?

জামিলা : উনার আসল নাম আমি ঠিক বলতে পারব না। সমিরদা নামে ডাকতাম। একদিন উনি আমার বাসায় বাচ্চাদের জন্য কিছু খাবারদাবার আনছেন। তখন আমি বলছি যে, দাদা এগুলার দরকার কী? উনি বলছেন যে, এগুলা তোমার জন্য না। এগুলা আমার ভাতিজিভাতিজার জন্য। তিনি আমাদের পরিবারের লগে এমন আপন ছিলেন যে। তাছাড়া, খুব তাড়াতাড়ি আপন করে নিতে পারতেন তিনি। তার মধ্যে আন্তরিকতা ছিল খুব বেশি।

নেসার : আপনার সাথে রাজনীতি নিয়ে কথা হতো কি তার?

জামিলা : না। আমি সময়ও পাইতাম না। ব্যস্ত থাকতাম সব সময়। (বিস্তারিত…)

Advertisements

লিখেছেন: নেসার আহমেদ

Fukushima-nuclear-disaster২০১৩ সালের ১৫ জানুয়ারি। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাশিয়া সফর করেন। ওই সফরে প্রেসিডেন্ট পুতিনের সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৮ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র ক্রয়সংক্রান্ত একটা ঋণচুক্তি স্বাক্ষর হয়। যা আমরা কমবেশি সবাই জানি।

ওই একই সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে রাশিয়ার আরেকটি দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর হয়। যাকে পরমাণুশক্তি নির্ভর বিদ্যুৎ প্রকল্প চুক্তি বলা হচ্ছে। যা ঈশ্বরদীর রূপপুরে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার কথা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ২০১৩ সালের ২ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকালে তার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন এবং সরকারের পক্ষ থেকে আরো জানানো হয় যে, রূপপুরে একটি নয় দুই দুইটি পরমাণুশক্তি নির্ভর বিদ্যুৎ প্রকল্প স্থাপন করা হবে। যার এক একটির উৎপাদন ক্ষমতা হবে ১০০০ মেগাওয়াট করে। তার সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের জন্য ৪,০০০ কোটি টাকার ঋণচুক্তি করা হয়েছে। তবে প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে প্রায় ২ বিলিয়ন ডলার। যার ৯০ ভাগ বহন করবে রাশিয়া। আর ১০ ভাগ বহন করতে হবে বাংলাদেশকে। এবং এই প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ২৬০ একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। এখানে যে রিঅ্যাক্টর ব্যবহার করা হবে তার নাম VVER-1000। যা নাকি সর্বোচ্চ ৮ মাত্রার ভূমিকম্পের মধ্যে টিকে থাকতে সক্ষম। এ ভাষ্যটি অবশ্য রাশিয়ানদের। (বিস্তারিত…)


Mofakhaffer Ul Chowdhury-1

মোফাখ্খার চৌধুরী

(আমরা সাধারণত “ক্রসফায়ার”এর একমুখী প্রচারপ্রচারণাটাই শুনে থাকি, এমনকি একেই সত্য বলে ধরে নিই, কিন্তু তার অপরদিকের সত্যটা আমাদের সামনে উন্মোচিত হয় না, বা হতে দেওয়া হয় না। এই “ক্রসফায়ার”এর অন্তর্নিহিত কারণ এবং এর সাথে রাষ্ট্রের রাজনৈতিকতার সম্পর্কটাও তুলে ধরা হয়েছে নেসার আহমেদ সম্পাদিত ক্রসফায়ার’ রাষ্ট্রের রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড বইটিতে। বইটি হয়তো অনেকেই পড়েছেন, আবার অনেকেরই হয়তো তা এখনো পড়া হয়নি। আর এ জন্যই এই বইয়ের প্রতিবেদনসমূহ এখানে পর্যায়ক্রমিকভাবে তুলে দেওয়া হচ্ছে। সম্পাদক)

প্রতিনিধি পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (এমএল)

নেসার: আপনার নাম, দলের নাম এবং পার্টিতে আপনার সাংগঠনিক অবস্থান উল্লেখ করে আলোচনা শুরু করা যেতে পারে।

তুষার: আমার নাম তুষার। আমি পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (এমএল) এর একজন প্রতিনিধি। (বিস্তারিত…)


bonduk(আমরা সাধারণত “ক্রসফায়ার”এর একমুখী প্রচারপ্রচারণাটাই শুনে থাকি, এমনকি একেই সত্য বলে ধরে নিই, কিন্তু তার অপরদিকের সত্যটা আমাদের সামনে উন্মোচিত হয় না, বা হতে দেওয়া হয় না। এই “ক্রসফায়ার”এর অন্তর্নিহিত কারণ এবং এর সাথে রাষ্ট্রের রাজনৈতিকতার সম্পর্কটাও তুলে ধরা হয়েছে নেসার আহমেদ সম্পাদিত ক্রসফায়ার’ রাষ্ট্রের রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড বইটিতে। বইটি হয়তো অনেকেই পড়েছেন, আবার অনেকেরই হয়তো তা এখনো পড়া হয়নি। আর এ জন্যই এই বইয়ের প্রতিবেদনসমূহ এখানে পর্যায়ক্রমিকভাবে তুলে দেওয়া হচ্ছে। সম্পাদক) (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: নেসার আহমেদ

cht-movementপার্বত্য চট্টগ্রামে এখন সামরিকায়নের মাত্রা বেড়েই চলেছে। প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো গ্রামের জনগোষ্টিকে উচ্ছেদ করে সামরিক ক্যাম্প বসানোর সংবাদ আসছে। আতঙ্কে ভুগছেন তারা। জনগোষ্টি হিসাবে তাদের পরিচয় হলো তারা পাহাড়ি জাতিসত্তার মানুষ। বেড়ে গেছে সেটেলার কতৃক পাহাড়ি জাতিসত্তার মানুষের ওপর নিপীড়ন। নারী নিপীড়নের হার। যার মধ্যে ধর্ষণ অন্যতম। পাহাড়ি জাতিসত্তার শিশুরাও রেহাই পাচ্ছেন না, সেই আগ্রসন থেকে। বাড়ছে সেটেলারদের সংখ্যা। রাষ্ট্রের প্রত্যক্ষ মদদে। আইন তার খোলস ছেড়ে বেরিয়েছি। যা নিপীড়িত পাহাড়ি জনগোষ্টি প্রশ্নে নির্বিকার। বরং ক্ষেত্র বিশেষ প্রতিবাদী পাহাড়ি নেতৃত্বকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। (বিস্তারিত…)


Maithon_dam_india-1[*এটাকে ঠিক লেখা হিসাবে না ধরে একটা লেখার আংশিক খসড়া পাঠ হিসাবে বিবেচনা করলে ভাল করবেন, প্রিয় পাঠক নেসার আহমেদ]

নদীকেন্দ্রিক ভারতের তৎপরতা

ভারত ও বাংলাদেশের রাজনীতিতে পানি এখন একটা গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক ইস্যু। বাংলাদেশে ক্ষমতা চর্চাকারী সরকারিবিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি এ বিষয়ে নির্বিকার। কিন্তু ভারতের অবস্থান একদম বিপরীত। ওই রাষ্ট্রের কোনো কোনো প্রদেশে নির্বাচনের ইস্যু হিসাবে ‘জল ঘোলার’ রাজনীতি এখন প্রকট। বিশেষত প্রতি গ্রীষ্মেই দক্ষিণ ও পশ্চিম ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকার প্রায় ২৮ কোটি মানুষ তীব্র খরার কবলে আক্রান্ত হন। তাদের কাছে তখন খাদ্যবস্ত্রের চেয়ে তৃষ্ণা নিবারণের প্রশ্নটা প্রধান হয়ে ওঠে। যাকে ভিত্তি করে ১৯৯০ সালের পর থেকে দক্ষিণ ও পশ্চিম ভারতের ভোটের রাজনীতিতে পানি ইস্যুটি ভোটব্যাংক হিসাবে কাজ করে। (বিস্তারিত…)


bonduk(আমরা সাধারণত “ক্রসফায়ার”এর একমুখী প্রচারপ্রচারণাটাই শুনে থাকি, এমনকি একেই সত্য বলে ধরে নিই, কিন্তু তার অপরদিকের সত্যটা আমাদের সামনে উন্মোচিত হয় না, বা হতে দেওয়া হয় না। এই “ক্রসফায়ার”এর অন্তর্নিহিত কারণ এবং এর সাথে রাষ্ট্রের রাজনৈতিকতার সম্পর্কটাও তুলে ধরা হয়েছে নেসার আহমেদ সম্পাদিত ক্রসফায়ার’ রাষ্ট্রের রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড বইটিতে। বইটি হয়তো অনেকেই পড়েছেন, আবার অনেকেরই হয়তো তা এখনো পড়া হয়নি। আর এ জন্যই এই বইয়ের প্রতিবেদনসমূহ এখানে পর্যায়ক্রমিকভাবে তুলে দেওয়া হচ্ছে। সম্পাদক) (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: নেসার আহমেদ

patriarchyনারীর ক্যাটাগরি ও সৌন্দর্য্য নির্মাণের একটা বিষয় মনে হয় সব সমাজেই ছিল ও আছে। খুব সংক্ষেপে যদি আমরা বিষয়বস্তুর পরে নজর দেই, তাহলে কিছু তথ্যচিত্র দাঁড় করানো যেতে পারে। প্রাচীন ভারতে বাৎস্যায়নের কামসূত্রে নারীকে তিন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করা হয়েছিল। মৃগী, বড়রা ও হস্তিনি। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: নেসার আহমেদ

rana_plaza-1২৪ এপ্রিল, ২০১৩ সাল। ঐদিন সাভারে রানাপ্লাজা ভবন ধ্বসে হাজারের ঊর্ধ্বে কর্মরত শ্রমিক খুন হন। চরম নৃশংসতম ও ভয়াবহ এই হত্যাকাণ্ডের নজির গোটা বিশ্বের পোশাকশিল্পের ইতিহাসে মেলা ভার। হত্যাকাণ্ড আমাদের জনজীবনের পরে গভীর ছাপ রেখেছে। একইভাবে ক্রেতা রাষ্ট্রগুলোর জনগণের পরেও। শুরু হয়েছে নানামুখী আলোচনাসমালোচনা, প্রস্তাবনা ও রাজনীতি। যা দেশীয়আন্তর্জাতিক সব স্তরেই আজ চলছে। আমরা কেউই এই প্রতিক্রিয়ার বাইরে নই। ফলে সময়ের দাবি অনুযায়ী কিছু কথা বলা জরুরি (বিস্তারিত…)

প্রকাশিত হলো মঙ্গলধ্বনির ৩য় সংখ্যা…

Posted: নভেম্বর 3, 2013 in অর্থনীতি, আন্তর্জাতিক, দেশ, প্রকৃতি-পরিবেশ, মতাদর্শ, মন্তব্য প্রতিবেদন, সাহিত্য-সংস্কৃতি
ট্যাগসমূহ:, , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,

 Mongoldhoni-logo-1

মেষ শাবককে খাবার জন্যে নেকড়ের কোনো যুক্তির প্রয়োজন হয় না। কিন্তু চিঁ চিঁ ধ্বনির প্রতিবাদ নেকড়েকে প্রতিহত করতে পারে না। নেকড়েকে রুখতে হলে আকাশ বির্দীণ করা চিৎকার করতে হবে। তেমন চিৎকার একক কন্ঠে সম্ভব নয় সম্মিলিত কন্ঠে প্রবল শক্তির নির্ঘোষে হতে হবে। সেই শক্তির আবাহনের কর্তব্যবোধে ‘মঙ্গলধ্বনি’র সকল আয়োজন। জগতে একা একা কিছুই হয় না একটা কুটোও নড়ানো যায় না। তবু একা চলার সাহস দেখাতেই হবে। যে প্রথম সামনে এগোয় সে অন্যকে উৎসাহিত করে, অনুপ্রাণিত করে। একা ব্যক্তির এই ভূমিকা প্রশংসার, শ্রদ্ধার। ‘মঙ্গলধ্বনি’ প্রশংসা ও শ্রদ্ধার চেয়ে অধিক প্রত্যাশা করে সহযোগিতা ও সহমর্মিতা। আর একত্রিত হয়ে আকাশ বিদীর্ণ করা চিৎকার দেবার শক্তি হয়ে ওঠার। সে শক্তি নেকড়েদের কেবল রুখবেই না চিরতরে মানব সমাজ থেকে নিশ্চিহ্ন করে দেবে। নেকড়ে ও মানুষ এক সমাজে বাস করতে পারে না। (বিস্তারিত…)