Posts Tagged ‘গণমুক্তির গানের দল’


১৪ মে ২০১৭

ল্যাম্পপোস্ট ও গণমুক্তির গানের দল যৌথ উদ্যোগে আজ ১৪ মে ২০১৭ (রবিবার), বিকাল ৫টা, জাতীয় জাদুঘর গেটএর সামনে, শাহবাগ, ঢাকাতে ভারতবর্ষে শ্রমিকশ্রেণীর মতাদর্শের উচ্চতর স্তর মাওবাদের প্রবক্তা, ভারতবর্ষে কমিউনিস্ট আন্দোলনের নেতৃত্বের কর্তৃত্ব অবিসংবাদিত নেতা মহান শিক্ষক কমরেড চারু মজুমদারের জন্মশতবর্ষ এবং মহান নকশালবাড়ি কৃষক অভ্যুত্থানের অর্ধশতবর্ষ উদযাপন করা হয়। (বিস্তারিত…)


২৫ মে ২০১৫

ganamuktir-ganer-dolগত ২২ মে ২০১৫ তারিখ, শুক্রবার, বিকাল ৪টায় “বর্তমান বিশৃঙ্খলাপূর্ণ পরিস্থিতিতে সক্রিয় সংগ্রামী প্রচার ও মনোভাবের দ্বারা আমরা জনগণকে জাগ্রত করতে পারি।”মনিরুজ্জামান তারা

এই শ্লোগান নিয়ে গণমুক্তির গানের দল স্বাধীনতা স্কয়ার, স্টেশন বাজার, সিরাজগঞ্জএ মহান মাওবাদী ও কমরেড চারু মজুমদারের লাইনের অন্যতম প্রধান পতাকাবাহী নেতা কমরেড মনিরুজ্জামান তারার ৪১তম শহীদ দিবসএ আলোচনা সভা ও গণসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। (বিস্তারিত…)


তারিখ: ১৬/১২/২০১৩

আসুন ১৬ ডিসেম্বর’ ১৩ শহীদ কমরেড মোফাখ্খার চৌধুরী’র ১০ম শহীদ দিবস পালনের মধ্যদিয়ে নির্বাচনের নামে প্রতিক্রিয়াশীলদের চক্রান্তষড়যন্ত্রের স্বরূপ উন্মোচন করি।

mufakhkhar-chowdhury-1রুখে দাঁড়াও ক্রসফায়ার।” এই শ্লোগান ধারণ করে আজ ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৩ মহান মাওবাদী নেতা শহীদ কমরেড মোফাখ্খার চৌধুরী’র ১০ম শহীদ দিবসে গণমুক্তির গানের দল জাতীয় জাদুঘরের সামনে বিকাল ৩.৩০টায় প্রতিবাদী আলোচনা ও গণসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এ্যাডভোকেট যাহেদ করিম আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। ২০০৪ সালে ১৬ই ডিসেম্বরে “ক্রসফায়ার” নাটকের নামে প্রতিক্রিয়াশীল রাষ্ট্র মহান মাওবাদী নেতা পূর্ববাংলার কমিউনিষ্ট পার্টি (এম.এল)-এর সম্পাদক কমরেড মোফাখ্খার চৌধুরীকে নিমর্মভাবে হত্যা করে। সভায় বক্তারা বলেন, এনকাউন্টার, ক্রসফায়ার, গুম খুনের ‘বন্দুকযুদ্ধ’ নাটকের যে ধারাবাহিকতা অব্যাহতভাবে বর্তমান আছে তার মূল লক্ষ্য হলো মাওবাদী কমিউনিষ্ট বিপ্লবীরা। এর কারণ খুব স্পষ্ট। বাংলাদেশের মত মার্কিনের তাবেদার তথা সামাজ্যবাদ, সম্প্রসারণবাদ, এককথায় শোষকশ্রেণীর স্বার্থরক্ষাকারী সকল রাষ্ট্রের জন্যই গণশোষণ, লুন্ঠন, প্রতারণা ও হত্যার রাজনীতির পথে প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় মাওবাদী কমিউনিষ্ট বিপ্লবীরা। (বিস্তারিত…)


বয়কট করুন এই নির্বাচন’এই শ্লোগান তুলে ব্যর্থ করে দিন প্রতিক্রিয়াশীল শাসকশ্রেণীর ও তাদের দালাল সংশোধনবাদী ও নয়াসংশোধনবাদীদের শয়তানী প্রতিবিপ্লবী চক্রান্ত। ‘বয়কট’ অভিযানের সঙ্গে সঙ্গে চেয়ারম্যান মাওএর চিন্তাধারার (মাওবাদ) পতাকাতলে জনগণকে বিপ্লবী শ্রেণীসংগ্রামের পথে সংগঠিত ও সমবেত করতে হবে এবং নকশালবাড়ী ধরনের আন্দোলন গড়ে তোলার চেষ্টা করতে হবে, যা আমাদের জনগণতান্ত্রিক বিপ্লবের পথে এগিয়ে নিয়ে যাবে। চারু মজুমদার।

সহযোদ্ধা,

ganomuktir gaaner dolএই শ্লোগানকে ধারণ করে গণমুক্তির গনের দল ২৮ জুলাই, ২০১৩ বিকাল ৪ টায় জাতীয় জাদুঘরের সামনে আলোচনা সভা ও গণসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন এ্যাডভোকেট যাহেদ করিম। সভায় বক্তারা বলেন, এদেশের শাসকশ্রেণী নির্বাচনের নামে গণতন্ত্রের ভাওতা সৃষ্টি করে বিদ্যমান মেহনতি জনসাধারণের রক্তমাংস খেয়ে ফুলে ফেঁপে ওঠা রাষ্ট্রযন্ত্রটিকে অর্থাৎ সাম্রাজ্যবাদ সৃষ্ট ও লালিতপালিত র‌্যাব, পুলিশ, মিলিটারী, আমলা, আদালত নামক যন্ত্রটি ও গণলুন্ঠনমূলক এ ব্যবস্থাকে জনসাধারণের দৃষ্টি থেকে আড়ালে রাখতে চায়। (বিস্তারিত…)


 image003 (2) (বিস্তারিত…)

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :: শাহবাগে সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠনের বিক্ষোভ সমাবেশ

Posted: ডিসেম্বর 9, 2012 in দেশ
ট্যাগসমূহ:, , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,

propod-logo

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

শাহবাগে সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠনের বিক্ষোভ সমাবেশ

তাজরিন ফ্যাশনে অগ্নিকান্ডে নিহত, নিখোঁজ ও আহত শ্রমিকদের ঠিকানাসহ তালিকা প্রকাশ এবং প্রত্যেক নিহতদের পরিবারের জন্য ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের দাবি

গত ২৪ নভেম্বর আশুলিয়ার তাজরিন ফ্যাশনে অগ্নিকান্ডে শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে আজ বিকাল ৪.৩০ টার সময় রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশ আয়োজন করে কয়েকটি প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠন।

জাগরণের পাঠশালা, প্রপদ, ছাত্র গণমঞ্চ, বিপ্লবী ছাত্রযুব আন্দোলন, গণমুক্তির গানের দল, মার্কসবাদের প্রথম পাঠ, শহীদ রফিক স্মৃতি পাঠাগার, মঙ্গলধ্বনি, বিজ্ঞানচেতনা পরিষদ, ল্যাম্পপোস্ট, শহীদ বিপ্লবী ও দেশপ্রেমিক স্মৃতি সংসদ এবং প্রগতিশীল ব্যক্তিবর্গের আয়োজনে বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন গণসংস্কৃতি পরিষদের সভাপতি ম. নুরুন্নবী। (বিস্তারিত…)


মার্কিনসহ সাম্রাজ্যবাদ, ভারত ও তাদের দালাল শাসকশ্রেণীর রাষ্ট্র উচ্ছেদ করে শ্রমিককৃষকজনগণের রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ে

শ্রমিকশ্রেণী এক হও! শ্রমিক হত্যার বদলা নাও!

শ্রমিককৃষকের সাথে ছাত্রবুদ্ধিজীবীসংস্কৃতিকর্মী একাত্ম হও!

আশুলিয়ার তাজরিন ফ্যাশনে আগুনে পুড়িয়ে শ্রমিক হত্যা, নিহত ও আহতদের ক্ষতিপূরন, বকেয়া বেতন পরিশোধ, মালিককে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, নিহত ও আহত শ্রমিকদের তালিকা ঠিকানাসহ প্রকাশের দাবীতে

::::::বিক্ষোভ সমাবেশ:::::::

৮ ডিসেম্বর, শনিবার, বিকাল ৪.০০ টা,

জাতীয় যাদুঘর প্রাঙ্গন, শাহবাগ।

উপস্থিত হোন! অন্যদের উপস্থিত হতে অনুপ্রেরণা দিন! শ্রমিক হত্যার বদলা নিতে শ্রমিকদের সাথে ঐক্যবদ্ধ হোন!

Somabesh-3

.

গত ২৪ নভেম্বর আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুরে তোবা গ্রুপের তাজরিন ফ্যাশনের কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে শত শত শ্রমিক নিহত হয়েছে। সরকার ও গণমাধ্যমগুলো ১৩০জন শ্রমিক নিহত হয়েছে জানালেও স্থানীয় শ্রমিকদের দাবি অন্তত দেড় হাজার শ্রমিক নিহত হয়েছেন। অন্যদিকে, উক্ত কারখানার মালিক কর্ণফুলি ইন্সিওরেন্স থেকে ক্ষতিপূরণের চেক গ্রহণ করতে যাচ্ছেন। এই ঘটনার মাধ্যমে এটাই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে যে এসব কোন দুর্ঘটনা নয়। বরং, মালিক শ্রেণীর পরিকল্পিত নৃশংস শ্রমিক গণহত্যা। আর এতে ইন্ধন দিয়ে যাচ্ছে মালিক সমিতি বিজিএমইএসহ রাষ্ট্র ও সরকার। (বিস্তারিত…)


প্রেস বিজ্ঞপ্তি

প্রগতির পরিব্রাজক দল

কেন্দ্রীয় কার্যালয়: ডাকসু ভবন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।

মোবাইল: ০১৯১৩৩০৫২১৪, ইমেইল: propod_ppd@yahoo.com

—————————————————————————–

২৮ নভেম্বর ২০১২

আশুলিয়ায় আগুনে পুড়িয়ে শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদের ১১টি সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠনের বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল

নিহতদের ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ ও মালিককে গ্রেপ্তারের দাবি

গত ২৪ নভেম্বর আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুরে তাজরিন ফ্যাশনে অগ্নিকান্ডে শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে ১১টি প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠনের নেতৃত্বে ছাত্রবুদ্ধিজীবীসংস্কৃতিকর্মীরা আজ ২৮ নভেম্বর নিশ্চিন্তপুরে তাজরিন ফ্যাশনের পাশে বিক্ষোভ সমাবেশ আয়োজন করে।

জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চের যুগ্ম আহবায়ক এহতেশাম উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং বিপ্লবী ছাত্রযুব আন্দোলনের আহবায়ক তৌহিদুল ইসলামের পরিচালনায় এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। (বিস্তারিত…)

গার্মেন্টসে অগ্নিকাণ্ড ও ফ্লাইওভার ধ্বসের ঘটনায় কয়েকটি প্রগতিশীল সংগঠনের যৌথ বিবৃতি

Posted: নভেম্বর 27, 2012 in দেশ
ট্যাগসমূহ:, , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,

যৌথ বিবৃতি

গত ২৪ নভেম্বর আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুরে তোবা গ্রুপের তাজরিন ফ্যাশনের কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে শত শত শ্রমিক নিহত হয়েছে। সরকার ও গণমাধ্যমগুলো ১৩০জন শ্রমিক নিহত হয়েছে জানালেও স্থানীয় শ্রমিকদের দাবি অন্তত দেড় হাজার শ্রমিক নিহত হয়েছেন। অন্যদিকে, আজই উক্ত কারখানার মালিক কর্ণফুলি ইন্সিওরেন্স থেকে ক্ষতিপূরণের চেক গ্রহণ করতে যাচ্ছেন। এই ঘটনার মাধ্যমে এটাই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে যে এসব কোন দুর্ঘটনা নয়। বরং, মালিক শ্রেণীর পরিকল্পিত নৃশংস শ্রমিক গণহত্যা। আর এতে ইন্ধন দিয়ে যাচ্ছে মালিক সমিতি বিজিএমইএসহ রাষ্ট্র ও সরকার। (বিস্তারিত…)


প্রেস বিজ্ঞপ্তি

২৮ জুলাই, ২০১২

২৮ জুলাই শনিবার বিকাল ৩.৩০ মিনিটে ছবির হাট চারুকলা ইনষ্টিটিউটের বিপরীতে ‘গণমুক্তির গানের দল’এর উদ্যোগে উদযাপিত হয়েছে মহান শিক্ষক কমরেড চারু মজুমদার’র ৪১তম শহীদ দিবস। এ উপলক্ষ্যে “জনগণের বলিষ্ঠ প্রতিরোধ শক্রর মনোবল চূর্ণবিচূর্ণ করে দিতে পারবে”, এই শ্লোগানের আলোকে অনুষ্ঠিত হয়েছে আলোচনা সভা ও গণসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন এ্যাডভোকেট যাহেদ করিম।

কমরেড চারু মজুমদার ভারতবর্ষ তথা দক্ষিণ এশিয়ায় আদর্শের উত্তরাধিকার হিসেবে মাওবাদকে সর্বপ্রথম পূর্ণাঙ্গভাবে আত্মস্থ করেন, রক্ষা করেন এবং আন্তর্জাতিক শ্রমিকশ্রেণীর বৈজ্ঞানিক মতবাদ মার্কসবাদলেনিনবাদের সর্বোচ্চ বিকশিত রূপ হিসাবে মাওবাদকে প্রয়োগ করে আধাউপনিবেশিকআধাসামন্ততান্ত্রিক ভারতবর্ষের কমিউনিস্ট পার্টির মানদণ্ড, রূপপ্রকৃতি, কর্মসূচী নির্ধারণের দৃষ্টিভঙ্গী ও বিচারবোধের গুণগত পরিবর্তন সাধন করেন এবং দক্ষিণ এশিয়ায় সংশোধনবাদী নয়া সংশোধনবাদী কমিউনিস্ট পার্টি ও আন্দোলনের বিপরীতে নতুন মতাদর্শের উপযুক্ত নতুন ধরনের বিপ্লবী কমিউনিস্ট পার্টি ও আন্দোলন প্রতিষ্ঠা করেন।

সভায় বক্তরা বলেন, আমাদের দেশ একটি নয়াউপনিবেশিক দেশ। আমাদের সমাজের চরিত্র আধাউপনিবেশিক আধাসামন্ততান্ত্রিক এবং বিপ্লবের স্তর নয়াগণতান্ত্রিক। মার্কসবাদলেনিনবাদমাওবাদ ও চারু মজুমদারের শিক্ষাসম্মত সর্বহারা শ্রেণীর নেতৃত্বই শ্রমিককৃষকের মৈত্রীর উপর আধারিত এই বিপ্লব সম্পন্ন করতে পারেন। আসুন মহান শিক্ষক কমরেড চারু মজুমদারের ৪১ তম শহীদ দিবস পালন করার মধ্য দিয়ে গণমানুষের নয়াগণতান্ত্রিক গণমুক্তির লক্ষ্যে সাম্রাজ্যবাদ, সম্প্রসারণবাদ, সামন্তবাদ ও আমলা মুৎসুদ্দী পুঁজিবাদের বিরুদ্ধে বিপ্লবী গণসাংস্কৃতিক আন্দোলন গড়ে তুলি।

আলোচনা সভায় অংগ্রহণ করেন

* এডভোকেট যাহেদ করিম (সভাপতি)

* কমরেড হাসান ফকরী

* আশিষ কোড়ায়া (সাধারণ সম্পাদক, গণমুক্তির গানের দল)

* আফরোজা (সদস্য, ল্যম্পপোষ্ট)

* মিথুন চাকমা (সংগঠক, ইউ পি ডি এফ)

* তমিজ উদ্দীন (সদস্য, নয়াগণতান্ত্রিক গণমোর্চা)

* শামসুজ্জামান মিলন, প্রগতিশীল রাজনীতিবিদ

* . নূরুন্নবী, বামবুদ্ধিজীবী

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে

* সমগীত

* গণমুক্তির গানের দল

* মুক্তির মঞ্চ

বিপ্লবী শুভেচ্ছান্তে,

আফরোজা খাতুন

সদস্য

গণমুক্তির গানের দল