Posts Tagged ‘গণমাধ্যম’


লিখেছেন: সারোয়ার তুষার

বহুদিন পর উঁহু, সম্ভবত এই প্রথম বস কোনো কাজের কাজ দিয়েছে বলে মনে হলো তার। চাকরিতে জয়েন করার পর এ পর্যন্ত যেসব অ্যাসাইনমেন্ট তূর্য পেয়েছে, সেসব শুধুমাত্র জঘন্যই না, অনেকটা ‘ডোন্ট ডিস্টার্ব দ্য বিগ ব্রাদার’ টাইপ। তারপরেও করতে হতো। করতে হয়। অন্নসংস্থান বলে কথা। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষ করার পর কি করবো, কি করবো এই যখন অবস্থা তূর্যের, তখন বন্ধুস্বজন অনেকেই সাংবাদিকতায় ঢোকার পরামর্শ দিয়েছিল। সেই অর্থে আটটাপাঁচটা ডিউটি নাই, ফ্রিডম আছে। আর তার যেহেতু লেখালেখির বাতিক আছে, সেই সুযোগও নাকি পাওয়া যাবে। শিক্ষকতায় ঢুকতে পারলে নাকি সবচেয়ে ভালো হতো অবারিত স্বাধীনতা, আবার জাতির বিবেকও নাকি হওয়া যায়! শুনেই তূর্যের ভিড়মি খাওয়ার মতো অবস্থা হয়েছিল, আরঙ্গে সঙ্গেই সিদ্ধান্ত নিয়ে নিলো যাক, তাহলে সাংবাদিকতাই ভালো। শিক্ষক হয়ে জাতির বিবেক মারার মত রুঢ় পরিহাস তো অন্তত করতে হবে না। (বিস্তারিত…)

Advertisements

লিখেছেন: বাধন অধিকারী

farhad-mazhar-6একুশে টেলিভিশনের এক টক শোতে ফরহাদ মজহারের গণমাধ্যম সংক্রান্ত বক্তব্য এই লেখার প্রেরণা। কদিন আগে ‘একুশের রাত’ নামের ওই আলোচনায়, একাত্তর টেলিভিশনে পিকেটারদের হামলার প্রেক্ষাপটে সঞ্চালক আলাপ তুললে, রাজনীতিক কাজী ফিরোজ রশীদ এবং চিন্তক ফরহাদ মজহার এ নিয়ে নিজেদের অবস্থান জানান। কাজী ফিরোজ, হামলার বিরোধীতা করে সঞ্চালককে উদ্দেশ্য করে বলেন, তাদের মানে গণমাধ্যম সংশ্লিষ্টদের দায়িত্বশীল হতে হবে আরও। একপক্ষীয় অবস্থান নেয়া যাবে না। নাহলে হামলার ঘটনা এড়ানো যাবে না। অন্যদিকে ফরহাদ মজহারের কিছু সুনির্দিষ্ট গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগ ছিলো গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: শাহেরীন আরাফাত

অবরুদ্ধ গণমাধ্যম

আমাদের দেশে গণমাধ্যম কতটুকু গণমানুষের আর তা কতটুকু স্বতন্ত্র বা স্বাধীনভাবে কাজ করতে সক্ষম তা বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জন্মলগ্ন থেকেই প্রশ্নবিদ্ধ। কিন্তু সম্প্রতি প্রস্তাবিত সম্প্রচার আইন২০১১ এতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে। বস্তুত, এই আইন জারী হলে দেশের সরকারীবেসরকারী সকল সম্প্রচার মাধ্যম প্রত্যক্ষভাবে রাষ্ট্রের ক্ষমতাসীনদের কুক্ষিগত হবে। যদিও বর্তমান মহাজোট সরকারের প্রধান দল আওয়ামী লীগের ২৩ দফা নির্বাচনী ইশতেহারের ১৯তম দফায় গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সম্পর্কে সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছিল, “ সকল প্রকার গণমাধ্যমের স্বাধীনতান ও তথ্যপ্রবাহের অবাধ চলাচল সুনিশ্চিত ও সংরক্ষণ করা হবে।” কিন্তু তারা যে গণমাধ্যমকে স্বাধীন করতে কতটা সচেতন (!) তা গত পৌনে তিন বছরে বিভিন্ন প্রিন্ট/ইলেক্ট্রনিক/অনলাইন মাধ্যম, এমন কি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক বন্ধের মাধ্যমে আমাদের বেশ ভালভাবেই বুঝিয়ে দিয়েছেন। (বিস্তারিত…)