Posts Tagged ‘কাশ্মীর’


লিখেছেন : বৃহদ্রথ

কাশ্মীরে কারফিউ জারি করা হয়েছে। ১০ হাজার কাশ্মীরিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ থেকে ঠিক এক বছর আগে ৫ আগস্ট ২০১৯, ভারত রাষ্ট্র ও জম্মুকাশ্মীরের রাজার মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তি (ইন্সট্রুমেন্ট অব অ্যাকসেশন, ২৬ অক্টোবর ১৯৪৭) মোতাবেক তৈরি ভারতীয় সংবিধানেরঅনুচ্ছেদ ৩৭০ এবং প্রদত্ত বিশেষ সুবিধা ৩৫এ ধারা বিজেপি সরকার সম্পূর্ণ একতরফাভাবে বাতিল করেছে। সেইসঙ্গে জম্মুকাশ্মীরকে দুটি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করা হয়েছে জম্মুকাশ্মীরের জনগণের আশাআকাঙ্ক্ষা বা মতামতের কোনো পরোয়া না করে মোদিশাহ্‌ সরকার কাশ্মীরি তাদের উপর নিজেদের সিদ্ধান্ত জোরপূর্বক চাপিয়ে দিয়েছে, যা কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন সংক্রান্ত চুক্তির সম্পূর্ণ পরিপন্থী। স্বাভাবিকভাবেই কাশ্মীরিরা অনুচ্ছেদ ৩৭০ ও ৩৫এ ধারা বাতিল করার সিদ্ধান্ত ও তার পদ্ধতি নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ভারত সরকারের এই আচরণে তারা এতটাই আতঙ্কগ্রস্থ যে, এক বছরেও স্বাভাবিক জীবনযাপনে ফিরে আসতে পারেননি। মিডিয়া অথবা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এখনো তারা মুখ খুলতে পারছেন না। বাড়ির বাইরে বেরোলেই তাদের ভারতীয় আধাসামরিক বাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হচ্ছে। কখনো গ্রেফতার করা হচ্ছে, কখনো বেআইনিভাবে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করা হচ্ছে। জম্মুকাশ্মীরের কয়েকজন সাবেক মুখ্যমন্ত্রীসহ বিজেপি ছাড়া প্রায় সব রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা হয় গৃহবন্দী অথবা গ্রেফতার হয়েছেন (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: শাহেরীন আরাফাত

কাশ্মীরে পাকিস্তানভিত্তিক সন্ত্রাসীগোষ্ঠী জইশমোহাম্মদ হামলা চালিয়ে অন্তত ৪৪ জন আধা সামরিক বাহিনীর (সিআরপিএফ) সদস্যকে হত্যা করেছে। এ নিয়ে কয়েকজন বন্ধুর বিক্ষিপ্ত মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই নিজের অবস্থান জানান দেওয়াটা জরুরি মনে করছি।

শত্রুর শত্রু মিত্রএমন চিন্তা যেমন সঠিক নয়; তেমনি শত্রুর উপর হামলা হলেই সেটা ন্যায্যতা পেতে পারে না। বরং কে, কোন উদ্দেশ্যে, কার উপর হামলা চালালোসেটাই বিষয়টির দৃষ্টিভঙ্গীর মোদ্দা কথা। কোনো সন্ত্রাসীগোষ্ঠী সাম্রাজ্যবাদসম্প্রসারণবাদের বুকে ছুরি চালালেও ওই সংগঠন সন্ত্রাসীই থাকে। আবার জনগণের মধ্যকার কোনো বিপ্লবী শক্তির যদি সেই মাপের সশস্ত্র আক্রমণ করার শক্তি নাও থাকে, তবুও সেটি অবশ্যই বিপ্লবী শক্তি। কারণপার্থক্যটা গড়ে দেয় সেই চিন্তা কাঠামোযা নির্ধারণ করে কে কার পক্ষেকে গণমুখী, আর কে গণবিরোধী। আর এ কারণেই যখন সাধারণ কাশ্মীরী, বা তাদের স্বাধীনতার পক্ষে কোনো সংগঠন এমন হামলা চালালে, তার এক ভিন্ন ন্যায্যতা প্রাপ্য। আবার পার্শ্ববর্তী দেশের সেনাসমর্থিত সন্ত্রাসীরা ওই হামলা চালালে তা ন্যায্যতা পেতে পারে না। সন্ত্রাসীদের উদ্দেশ্য স্বাধীনতা নয়, কাশ্মীরের পাকিস্তানে অন্তর্ভুক্তি! (বিস্তারিত…)