Posts Tagged ‘কবিতা’


লিখেছেন : শাহেরীন আরাফাত

যে দেশে মৌসুমী ঝড় মানেই
কয়েকটা ‘মূল্যহীন’ প্রাণের বিসর্জন
ফসলের মাঠে আগুন দেয় কৃষক
শ্রমিকের কলে লুটেরা নিয়ন্ত্রণ

অনিশ্চিত জীবন, অনিশ্চিত ভবিষ্যত
অনিশ্চিত প্রজন্ম, অনিশ্চিত কর্মসংস্থান
(বিস্তারিত…)


লিখেছেন : শিশির মল্লিক

অদৃশ্য মৃত্যুঘাতী ভাইরাস ওৎ পেতে আছে

রাষ্ট্রীয় গুপ্তচরের মতো

অন্তরীণ থাকা আইসোলেশনের একঘেঁয়েমী

বিপ্লবী করে তুলছে ক্রমশ

কোন এক কমিউনিস্ট বিপ্লবীর মতো

তুমি গোপনে গুপ্তচরদের চোখ

ফাঁকি দিয়ে এলে দেখা করতে;

আমিও সন্ত্রস্ত পায়ে ঘর বার হয়ে

দূরত্ব বজায় রেখে মিলিত হলাম (বিস্তারিত…)


লিখেছেন : শাহেরীন আরাফাত

জানো

জনমে দেখিনি এমন পৃথিবী

এভাবে দেখবো, ভাবিওনি

জ্যামের শহর আজ ভুতুরে নগরী

তবু নির্মল বায়ুর মাঝে পাখির কাকলী

চিৎকার করে কিছু বলতে চাইছিলাম

মাথার উপর শকুনের চাহনি (বিস্তারিত…)


স্পর্ধা

——–

ঘাতক, তোমার প্রতিবন্ধক,

মারণযজ্ঞ, আইনি খড়্গ,

শাসন খেয়াল, নিষেধ দেয়াল,

যুদ্ধবিকার, সবুজ শিকার,

হাতের শেকল – করতে বিকল

যুদ্ধরত, সমুদ্যত

কাস্তে ধরা সংগ্রামী হাত

তরতাজা প্রাণ। (বিস্তারিত…)


আইনের দেবীকে

—————–

হাতে আলু মাপার পাল্লা নিয়া

কই চললা আইনের দেবী?

এক হাঁটু ভাইঙ্গা সামনের দিকে যায়।

দৌড়ের উপর যে রইছ

বোঝাচ্ছে ভঙ্গিমায়।

চোখে আবার পট্টি দিছো, আছাড় খাবা নাতো?

ঈদগাহ হতে এনেক্স ভবনের পথ যে

প্রায় এক মাইলের মতো? (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: লাবণী মণ্ডল

শিল্পসাহিত্যে আলোচনাসমালোচনাপর্যালোচনা খুব গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। এ নিয়ে সন্দেহ করার কোনো অবকাশ নেই। কোনো শিল্পকর্ম, রচনা বা বইয়ের রিভিউ বা সমালোচনা পত্রিকায় ছাপা হলে সংশ্লিষ্ট শিল্পকর্মটি সম্পর্কে পাঠক আগে থেকেই সে সম্পর্কে জানতে পারেন, তাতে আগ্রহ জন্মায়। আর একজন পাঠকের মতামতের উপর ভিত্তি করে লেখকের লেখনীর গুরুত্ব।

আমি সাধারণত কবিতার বই পড়ি না, কবিতা খুব একটা বুঝিও না! সমর সেন, সুভাষ মুখোপাধ্যায়, সুকান্ত ভট্টাচার্যের কবিতা আমায় বেশ টানে তাঁদের কবিতায় আমি ‘আমাকে’ খুঁজে বেড়াই। সেই খুঁজে বেড়ানোকে কেন্দ্র করেই এবং ধারাবাহিকতা রক্ষা করার জন্যই শাহেরীন আরাফাত লিখিত ‘আত্মের অন্বেষণ’ শীর্ষক কবিতার বইটি পড়া শুরু করিঅনেকটা দু’টানা মনোভাব নিয়ে। কেননা এ সময়ের কবিদের ‘কবিতা’ কি আমায় টানবে, বা তাঁদের কবিতাকে কি আমি টানতে পারবো! (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: শাহেরীন আরাফাত

একেকজন কমরেড শহীদ হওয়ার খবর আসে

কেঁদে উঠে মন

তবু চোখ কাঁদে না

শ্রেণীসংগ্রামে জীবন বিসর্জন

এটাই তো তাঁরা চেয়েছিলো (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: অজয় রায়

অন্ধমূকবধির নাকি?

অথর্ব বোধহয়

লোকে তাই ভেবেছিল;

লাথি মেরে ফেলেছিল।

কিন্তু তার যে সাড় আছে!

মৃত তো নয়, কাটলে যে

তারও রক্ত বেরোয়! (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: এম.এম. হাওলাদার

.

মায়ের কোলে রাখলে মাথা

কার ইশারায় খবরদারি?

মায়ের ভাষায় বলতে মানা

কোন নিয়মে হুকুম জারি?

.

অমর একুশে ফেব্রুয়ারি,

শহীদ মিনার কাঁদছে কেন?

রফিকসালামবরকতেরা

প্রাণ দিয়েছেন বৃথাই যেন! (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: অর্ক দীপ

তোর জিভ এখনো ঠাণ্ডা মাংস হয়ে যায়নি

তোর গলা এখনো তলিয়ে যায়নি কাফনের অন্ধকারে।

অজস্র লাথি তোর শরীরে কামড় বসিয়ে গেছে,

তবু তুই বুকে হাঁটিস না,

আগাছার ময়দানে তুই এক টুকরো ঘাস জমি।

শেষ কয়েকটা কয়লা এখনও নিঃশ্বাস ফেলছে

যে কটা হাতুড়ি আছে,

তৈরি

প্রত্যাঘাত নিয়ে। (বিস্তারিত…)