Posts Tagged ‘আহমদ জসিম’


লিখেছেন: আহমদ জসিম

Kamruzzaman_Jahangir-2অনেক সমালোচকেই লেভ তলস্তয় সম্পর্কে বলে থাকেন: মানুষ হিসেবে তাঁর অপরাধ বোধই তাঁকে শক্তিশালী সাহিত্যিক হিসেবে গড়ে তুলেছে। না, আমি মোটেও লেভ তলস্তয়ের সাথে কথাসাহিত্যিক কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীরের তুলনা করছি না, কিংবা তাঁর জীবনকালে সাহিত্যের যে বিষয়গুলো নিয়ে আমাদের মধ্যে তীব্র বিরোধ হতো, সেই বিরোধগুলো থেকেও সরে আসছি না। এতটুকু আমি জোর দিয়ে বলতে পারি, জীবনকালে তাঁর সাহিত্য নিয়ে আমার উদ্দেশ্য প্রণোদিত সমালোচনা ছিল না, তাই মৃত জাহাঙ্গীর ভাইকে নিয়ে লিখতে গিয়ে পূর্বের কোনো কিছু অস্বীকার করার উপায়ও রইলো না। আমি এখন প্রয়াস চালাচ্ছি সাহিত্যিক কামরুজ্জামন জাহাঙ্গীর থেকে ব্যক্তি জাহাঙ্গীর ভাইকে একটু আলাদা করে দেখার। (বিস্তারিত…)

Advertisements

লিখেছেন: আহমদ জসিম

Flag_of_Bangladesh_Nationalist_Partyকার্যত বিএনপি এখন কোথাও নেই! নেই ক্ষমতায়, নেই বিরোধী দলে, নেই আন্দোলনের মাঠে, নেই সংলাপের টেবিলে। নেই মানে দলটার অস্তিত্ব বিলীন হয়ে গেছে ব্যাপারটা মোটেও এমন নয়। বরং আজও সরকারের শক্তিশালী প্রতিপক্ষের নাম বিএনপি। আজও কোটি কোটি কর্মী, সমর্থক নিয়ে সমাজে বিরাজমান রাজনৈতিক শক্তির নাম বিএনপি। তাই স্বাভাবিক নিয়মেই প্রশ্ন আসে যে দলের এত জনসম্পৃক্ততা, এত বিশাল কর্মীবাহিনী; তার এমন করুণ হাল কেন হল? এই কেন এর উত্তর খোঁজার জন্য আমাদের দলটার রণকৌশলের দিকে একটু নজর দিতে হবে। জেনারেল এরশাদের পতনের পর থেকেই আমরা দেখে আসছি বিএনপিআওয়ামীলীগ এই দুই দলের পাল্টাপাল্টি ক্ষমতার পালাবদল। দেখেছি যে দল ক্ষমতা যায় তাদের সীমাহীন দুর্নীতি আর ভয়ানক গণবিচ্ছিন্নতা, দেখেছি ৮ম সংসদ নির্বাচনে বিপুল বিজয়ী দল বিএনপি নবম সংসদ নির্বাচনে ভয়াবহ পরাজয়। আবার দশম সংসদ নির্বাচনও যদি অবা, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষভাবে হতো, তবে সেই নির্বাচনে যে আওয়ামীলীগের ভয়ানক ভরাডুবি হতো সেই ধারণা আমরা নানা জনমত জরিপ আর স্থানীয় সরকার নির্বাচনগুলোর ফলাফল বিশ্লেষণ করে ধারণ করতে পারি। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আহমদ জসিম

national-consciousnessইদানীং আমাদের মিডিয়াতে বিপরীতমুখী কিছু সংবাদ সব সচেতন নাগরিকেরই দৃষ্টি কেড়েছে। যেমন ধরুন, যে দিন নিউজ হলো, আমাদের মাথাপিছু গড় আয় বেড়ে ১০৮০ ডলার হয়েছে আবার সেই দিনই প্রায় পত্রিকার প্রধান শিরোনাম ছিল জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে হাজার হাজার বাংলাদেশি সমুদ্রে ভাসছে! হ্যাঁ, এইসব সমুদ্রে ভাসা মানুষগুলো জীবনজীবিকার তাগিদ অবৈধ পথে স্বদেশ ছেড়ে বিদেশে পাড়ি দিতে গিয়েছিল। নিয়তি তাদের জীবনের কঠিনতম রূপটা দেখিয়ে দিল। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

sindabader-galicha-1বন্ধুবর আহমদ জসিমের ‘সিন্দাবাদের গালিচা’ নামক গল্পগ্রন্থটি বেরিয়েছে এ বছরের একুশে বইমেলায়, অগ্রদূত পাবলিকেশন্স লিমিটেড থেকে। আমার জানামতে এটি তার দ্বিতীয় গল্পগ্রন্থ, এর আগে ‘যেভাবে তৈরি হল একটি মিথ’ নামে প্রথম বইটি প্রকাশিত হয়েছিল ২০১০ সালে তেপান্তর থেকে। বইয়ের প্রচ্ছদ সুদৃশ্য, ভেতরের ফ্ল্যাপে বইটি সম্পর্কে অকালপ্রয়াত সাহিত্যিক কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীরের দুয়েকটি কথা লেখা দেখে মনে বেদনাবোধ জাগ্রত হয়। জাহাঙ্গীর হঠাৎই গত ৭ মার্চ আমাদের ছেড়ে গেছেন না ফেরার দেশে।

বাংলা কথাসাহিত্যের আধুনিক ধারায় শিল্পীরা যা রপ্ত করেছেন তাহলো নৈর্ব্যক্তিকতার কৌশল। এখানে বলে নেয়া ভালো যে সাহিত্য সম্পর্কে আমার নিজের জ্ঞান অতি অল্প, আর সাম্প্রতিক লেখকদের গল্পকবিতাও আমি পড়েছি খুবই কম। আধুনিক লেখক বলতে এখানে যেটা বোঝাচ্ছি তার শুরু সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর হাত ধরে। ওয়ালীউল্লাহ থেকে শওকত ওসমান, হাসান আজিজুল হক, শওকত আলী, সৈয়দ শামসুল হক, আখতারুজ্জামান ইলিয়াস, শহীদুল জহির, মঈনুল আহসান সাবের, শাহাদুজ্জামান এদের কথাই বোঝাতে চাইছি কেননা তাদের সাহিত্যকৃতির সাথেই আমি কমবেশি পরিচিত। সাহিত্যের বিভিন্ন শৃঙ্খলার মধ্যে ছোট গল্প নির্মাণ আমার কাছে সবচেয়ে কঠিন কাজ বলে মনে হয়। কেননা একটি সীমিত পরিসরে নৈর্ব্যক্তিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে জীবনকে দেখা, মূল বক্তব্য সরাসরি প্রকাশ না করেও পাঠকের মধ্যে তার অন্তর্বস্তুটুকুকে চারিয়ে দেয়া এটা কোনো সহজ কথা নয়। তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে গল্পের সারকথা বক্তব্য আকারে সামনে আনতে গেলে শুধু যে তা শিল্পগুণ হারায় তাই নয়, পাঠকের বোধজ্ঞানের ওপরও বলতে গেলে অবিচার করা হয়। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আহমদ জসিম

bnp-logoকার্য্যত বিএনপি এখন কোথাও নেই। নেই ক্ষমতায়,নেই বিরোধী দলে। নেই আন্দোলনের মাঠে, নেই সংলাপের টেবিলে। নেই মানে দলটার অস্তিত্ব বিলীন হয়ে গেছে ব্যাপারটা মোটেও এমন নয়। বরং আজও সরকারের শক্তিশালী প্রতিপক্ষের নাম বিএনপি। আজও কোটি কোটি নেতা, কর্মী, সমর্থক নিয়ে সমাজে বিরাজমান রাজনৈতিক শক্তির নাম বিএনপি। যে দলের এত শক্তি এতবড় কর্মী বাহিনী তবে তার এমন করুণ হাল কেন হলো? (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আহমদ জসিম

communist-signআমরা কেন লেখি?যে কোন লেখকের জন্য এটা একটা মৌলিক প্রশ্ন। এই প্রশ্ন প্রসঙ্গে সর্বহারা শ্রেণীর মহানায়ক কমরেড মাও সেতুঙ তাঁর সাহিত্য বিষয়ক ঐতিহাসিক ইয়ানানের ভাষণে বলেছেন, সিদ্ধান্ত নিতে যতই বিলম্ব হোক, আগে আমাদের এই প্রশ্নের সমাধানে আসা উচিৎ আমরা কেন লিখবো (পাঠের স্মৃতি থেকে)। মাকর্সবাদীরা শ্রেণীবিলোপের রাজনৈতিক দর্শনে বিশ্বাস করে, তাই সাধারণভাবেই আমরা ধারণা করতে পারি, একজন মার্কসীয় দর্শনে বিশ্বাসী লেখক তার সাহিত্য কর্মের ভিতর দিয়ে শ্রেণী চেতনাবোধকেই ফুটিয়ে তুলবে। (বিস্তারিত…)

প্রকাশিত হলো মঙ্গলধ্বনির ৩য় সংখ্যা…

Posted: নভেম্বর 3, 2013 in অর্থনীতি, আন্তর্জাতিক, দেশ, প্রকৃতি-পরিবেশ, মতাদর্শ, মন্তব্য প্রতিবেদন, সাহিত্য-সংস্কৃতি
ট্যাগসমূহ:, , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,

 Mongoldhoni-logo-1

মেষ শাবককে খাবার জন্যে নেকড়ের কোনো যুক্তির প্রয়োজন হয় না। কিন্তু চিঁ চিঁ ধ্বনির প্রতিবাদ নেকড়েকে প্রতিহত করতে পারে না। নেকড়েকে রুখতে হলে আকাশ বির্দীণ করা চিৎকার করতে হবে। তেমন চিৎকার একক কন্ঠে সম্ভব নয় সম্মিলিত কন্ঠে প্রবল শক্তির নির্ঘোষে হতে হবে। সেই শক্তির আবাহনের কর্তব্যবোধে ‘মঙ্গলধ্বনি’র সকল আয়োজন। জগতে একা একা কিছুই হয় না একটা কুটোও নড়ানো যায় না। তবু একা চলার সাহস দেখাতেই হবে। যে প্রথম সামনে এগোয় সে অন্যকে উৎসাহিত করে, অনুপ্রাণিত করে। একা ব্যক্তির এই ভূমিকা প্রশংসার, শ্রদ্ধার। ‘মঙ্গলধ্বনি’ প্রশংসা ও শ্রদ্ধার চেয়ে অধিক প্রত্যাশা করে সহযোগিতা ও সহমর্মিতা। আর একত্রিত হয়ে আকাশ বিদীর্ণ করা চিৎকার দেবার শক্তি হয়ে ওঠার। সে শক্তি নেকড়েদের কেবল রুখবেই না চিরতরে মানব সমাজ থেকে নিশ্চিহ্ন করে দেবে। নেকড়ে ও মানুষ এক সমাজে বাস করতে পারে না। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আহমদ জসিম

moinul-ahsan-saber-1নির্বাচিত গল্প,

লেখক: মঈনুল আহসান সাবের,

প্রকাশক: অনন্যা,

প্রকাশ কাল: ডিসেম্বর ২০১১,

প্রচ্ছদ: ধ্রুব এষ।

মধ্যসত্তর থেকে যিনি গল্প সৃজনের কাজটা সুনিপূণ হাতে করে যাচ্ছেন সেই মঈনুল আহসান সাবেরের নির্বাচিত গল্পগ্রন্থ পাঠ করতে গিয়ে আমাদের কিছু বিচার ও বিবেচনা বোধ সামনে এসে দাঁড়ায়। প্রথমেই স্মর্তব্য বাংলা ভাষায় ছোটগল্পের বুনন সূচিত হয়েছে রবীন্দ্রনাথের মতো বিশ্ববরেণ্য শিল্পীর হাত দিয়ে। রবীন্দ্রনাথ যখন বাংলা ভাষায় ছোটগল্প লিখছেন তখন তার সমকালের বিশ্বের অন্যান্য গল্পকারদের মধ্যে আছেনএলেন পো, ও হেনরি মোপাসার মতো গল্পকাররা। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আহমদ জসিম

shushil-2-মূল আলোচনা শুরু হইবার পূর্বে সভাপতি ও সভা সঞ্চালক মহোদয় উপস্থিত সভ্যগণের দিকে এক পলক চাহিলেন, অতঃপর অধ্যপক দেবু ছোট্টপাদ্দেয় শুরু করিলেন সভা সম্পর্কে তার নাতিদীর্ঘ ভূমিকা, উপস্থিত সভার সভ্যগণ আপনারা জানেন আমরা আজ এই মহতী সভায় উপস্থিত হইয়াছি, দেশ ও জাতির ভবিষ্যত তরুণ প্রজন্মের জন্য একটা গবেষণা বিষয় নির্ধারণ করিতে। সমাজে আমরা সুশীল বলিয়া চিহ্নিত হই, মনে রাখিতে হইবে সমাজে আমাদের নামের সহিত মিল আরেক প্রকারের মানব প্রজাতি রহিয়াছে। ইহাদের কর্ম পুরুষগণের দাড়ি গোফ কর্তন ছাড়াও শরীর মেসেজ করিয়া দেওয়া। আমরা কাহারো গোফ দাড়ি কর্তন না করিলেও আমাদের কর্ম হইলো চুলকাইয়া দেওয়া। অর্থাৎ চলমান সমাজ ও সময় কী করিয়া অধিক ভালভাবে পার করিতে পারে সেই বিষয় নিয়া শাসককে কান ফুসলানি ও পিট চুলকানি দিয়া থাকি। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আহমদ জসিম

shahbagh-3আবারও তারুণ্য জেগেছে, বহুকাল পরে হলেও জেগেছে। ৯০এর পর এমন জাগরণ আর আমাদের চোখে পড়েনি। ৯০এ স্বৈরাশাসককে উৎখাত করতে, এবার জাগলো ইতিহাসের একটা অমিমাংশিত হিসেবের নিষ্পত্তি করতে একটা জাতির অস্তিত্বকালীন সময়ে পুরো জাতির সাথে যারা বিশ্বাসঘাতকতা করেছে, যারা করেছে মানবতার চরম লঙ্ঘন তাদের যথাযথ পাওনা মিটিয়ে দিতে। একটা জাতির বিকাশের স্বার্থের সাথে তার ইতিহাসের দায় মিটানোর স্বার্থ এক ও অভিন্ন। ঠিক এই প্রতিশ্রুতি দিয়েইতো বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এসেছে। তরুণ সমাজ এই আশাতেই বুক বেঁধে বর্তমান সরকারকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করেছে। (বিস্তারিত…)