Posts Tagged ‘অসাধারণ’


লিখেছেন: প্রীতম অংকুশ

আমি অসাধারণ নই....আমি আর দশজনের মতই সাধারণ।

আর দশজনের মতই আমি আমিত্বে পূর্ণ।

আর দশজনের মতই মিথ্যের ম্যাজিক ক্লক টেনে

আমি অদৃশ্যমান হই।

সত্যের তীব্রতা প্রকাশ করার সৎসাহস নেই বলেই আমি সাধারণ!

সেই সাধারণ যে কিনা হাজারো দু:সময়ে নিজের সুসময়টা খুঁজে নিতে জানে।

যে কিনা শোষণের ঘূর্ণিঝরে ঠিকই ছাতা খুলে নিজেকে বাঁচাতে জানে।

যখন অন্ধতার হাত ধরে রক্ত পান হয় ধর্ম, কালী হবার তীব্র বাসনা চেপে বসে মনে,

তখন বিজ্ঞানমনস্ক আমি সত্য সমালোচক হই না, কেননা আমি সাধারণ।

এই বাংলার এক অসাধারণ মানুষ বলেছিলেন,

যেখানে সত্য প্রকাশ সাহসিকতার নিদর্শন, সেখানের অবস্থা শিঁউরে ওঠার মতোন।

অথচ সেই লোকটিরই সাধারণ হবার কথা ছিল।

সত্য, সাহস, প্রতিবাদ এগুলোই হবার ছিল স্বাভাবিক!

অথচ আর দশজনের মতই কিবোর্ডে আঙুল চালিয়ে বলি,

আমি সাধারণ কেননা আমি অসাধারণ নই…………….

Advertisements

লিখেছেন: যীশু মহমমদ

(যেই দিন তারেক মাসুদের গাড়িতে ৫ জন মরেছে সেই দিন পাবনায় বাস উল্টে আরো ৫ জন মরেছে। আগের দিন উত্তরায় র‍্যাব মেরেছে আরো ৫ জন। ৫++= আমরা চিনেছি ১জনকে। মৃত্যুর রাজনীতি আছে, শ্রেণী বিভাজন আছে। বিলকুল আছে।)

মৃতদেহ কাঁধে তুললে কতোটা ওজনতুমি এখনো জানো না

দুহাতে ছড়াও খইলঘু শোক,

সাদা ও প্রতীকী

কিঞ্চিত বিষণ্ন হয়ে ভাবো, খুব অংশ নেয়া হলো

মৃতদেহ কাঁধে তুললে কতোটা ওজনতুমি কিছুই জানো না

রনজিৎ দাশ, কবিকে

অসাধারনের মৃতুতে আমরা সাধারণেরা কেঁদে বুক ভাসাই। কিন্তু, সাধারণের মৃত্যুতে অসাধারণে ভূমিকাটা কেমন? মৃত্যুর কি কোন সাধারণ ও অসাধারণের যোগবিয়োগ আছে? বা খ্যাত ও অখ্যাত?

যে কৃষকটি কিংবা যে গামেন্টস শ্রমিকটি কিছু দিন আগে ও কিছু দিন পরে মরেছে ও মরবে সেই মৃতমুখগুলোকে আমরা কোন চিহ্নে চিহ্নিত করবো?

যিনি কবিতা লেখেন, যিনি সিনেমা করেন, যিনি নেতামি করেন তারা সবাই মরবে; —হোক সে অকাল মুত্যু, হোক সে অপঘাতে মৃত্যু, আত্মঘাতী মৃত্যু কিংবা বয়সের ভারের মৃত্যু। কবিতা লেখা, সিনেমা করা, নেতামি করার ‘গুণ’এ গুণান্বিতকে যদি অসাধারণের মৃত্যু বলি তবে কি— যিনি ধান রোপন করেন, যিনি নাও বেয়ে বেড়ান, যিনি কাপড় বুনেন তাদের মৃত্যুকে কি সাধারণের মৃত্যু বলবো? —হোক সে অকাল মৃত্যু, হোক সে অপঘাতে মৃত্যু, আত্মঘাতী মৃত্যু কিংবা বয়সের ভারের মৃত্যু। মৃত্যুর ও মৃতের তো সাধারণ অসাধারণ তকমায় পরিচয় হবার কথা ছিল না, মৃত্যু মানেই মর্মান্তিক। মৃত্যু মানেই বেদনার ভার।(জীবন যেমন সাম্য চায়, মৃত্যুও তার সাম্য চায়। আর যেই দিন মৃত্যুর সাম্য প্রতিষ্ঠিত হবে সেই দিন মৃত্যু পরমহয়ে উঠবে।) (বিস্তারিত…)