Archive for অক্টোবর, 2019


লিখেছেন: শাহেরীন আরাফাত

বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করাকে কেউ কেউ ‘প্রশংসনীয় উদ্যোগ’ বলে মূল্যায়ন টানছেন। সেটা কেউ বলতেই পারেন, এটা হতে পারে কারও ব্যক্তিগত বা সাংগঠনিক মূল্যায়ন। কিন্তু এর মধ্য দিয়ে ওই ব্যক্তি বা সংগঠনের শ্রেণী চরিত্রটাও প্রকাশ পায়।

প্রথমেই আসা যাক, মিডিয়ার দায়বদ্ধতার প্রশ্নেঅভিভাবকদের অনেকেই সন্তান বা আপনজনের জীবন ও ভবিষ্যত নিয়ে শঙ্কিত হয়ে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধের পক্ষে অবস্থান নিতে পারেন। কারণ তার সামনে যে রাজনীতিটা সামনে আসে, সেটা হলোফ্যাসিবাদের গণবিরোধী সন্ত্রাসের রাজনীতি। এর বিপরীতে শক্তিশালী গণমুখী রাজনীতির অনুপস্থিতিই এমন অবস্থানের কারণ। কিন্তু যখন কথিত মূলধারার কোনো প্রতিষ্ঠিত পত্রিকা এমন অবস্থান নেয়, তখন বুঝতে হবেএখানে তাদের রাজনৈতিক স্বার্থ লুকিয়ে আছে। এটাই ‘বিরাজনীতিকরণের রাজনীতি’। দেশের অন্যান্য পত্রিকাও বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধের খবরটি শিরোনাম করেছে। কিন্তু প্রথম আলো এ শিরোনামের নিচে একটি প্রতিক্রিয়া ‘ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করা উচিত’ শিরোনামে ছেপেছে। সেখানে বিশেষজ্ঞ বলতে যাদের মন্তব্য দেওয়া হয়েছে, তাদের প্রত্যেকেই এনজিওবাদী শিক্ষক। তাদের কাছে প্রগতিশীল ছাত্র আন্দোলন একটা মাথাব্যাথার কারণ, যা বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসক্রিপশনে শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ করতে বড় বাধা। আর ফ্যাসিবাদকে রাজনীতির একমাত্র ধরন হিসেবে উপস্থাপনের মধ্য দিয়ে কর্পোরেট স্বার্থে প্রথম আলো পাঠকের সামনে ওই বিরাজনীতিকরণের সাফাই গাইতে উপস্থিত হয়। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: অজয় রায়

দক্ষিণ আমেরিকার আমাজন অরণ্য পুড়ছে। বিশেষত, ব্রাজিলে এই দাবানল ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এ বছরের প্রথম আট মাসে আমাজনে ৭২ হাজার বারেরও বেশি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। যা গত বছরের এই সময়ের তুলনায় ৮৪ শতাংশ বেশি। ব্রাজিলের মহাকাশ গবেষণা সংস্থাইনপে এই তথ্য জানিয়েছে।[] আগুনের ঘটনা ঘটেছে ভেনেজুয়েলা এবং বলিভিয়ায়ও। এর মধ্যেই জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে গত মাসের শেষ সপ্তাহে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে ব্রাজিলের রাষ্ট্রপতি জাইর বলসোনারো বলেন, আমাজন অরণ্যাঞ্চলকে পৃথিবীর ফুসফুস দাবি করা ভুল ধারণা। কিন্তু এই বক্তব্যের পক্ষে তিনি কোনো যুক্তি দেননি। এদিকে, জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবেলার প্রশ্নে ‘বিশ্ব নেতাদের নিষ্ক্রিয়তা এবং সেই সঙ্গে বলসোনারোর মার্কিন সফরের প্রতিবাদে প্রায় আড়াই লাখ মানুষ বিক্ষোভ করেছেন শুধু নিউইয়র্ক শহরেই।[] বিশ্বের নানা প্রান্তে লাখ লাখ মানুষ এ নিয়ে পথে নেমেছেন। (বিস্তারিত…)