মুক্তির দল কী হতে পারে ‘জাতীয় সমাজতান্ত্রিক’?

Posted: নভেম্বর 25, 2017 in মন্তব্য প্রতিবেদন
ট্যাগসমূহ:, , , , ,

লিখেছেন: স্বপন মাঝি

সমাজতান্ত্রিক দল নামে কী কোনো দল হতে পারে? তাও আবার জাতীয়! ভাবা যায়? আমার মত অ আ ক খ পাঠকের কাছে এই প্রশ্নগুলো যখন গুরুত্বপূর্ণ, তখনও দেখছি, অনেক বড় বড় তাত্ত্বিক, বাকবাকুম করে, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের কীর্তন করে যাচ্ছেনদুঃখজনক হলেও সত্যি, ঐ জাতীয় দলগুলোতে অনেক আন্তরিক কর্মী রয়েছেনযেমন, একদা, এককালে আমিও ছিলাম

খুব সম্ভবত, ১৯৮২৮৩এর দিকে মুসলিম হাই স্কুলে প্রথম দেখা পেয়েছিলাম, আ স ম আব্দুর রব মহোদয়েরআমার পিতাশ্রীই আমাকে নিয়ে গিয়েছিলেনউনি জাসদ করতেন, চাইতেন, গুণধর পুত্র তাঁর পদাঙ্ক অনুসরণ করুকবিস্তারিত মনে নেইযে কারণে, আমার মোহভঙ্গ, সেটুকু বলিআফগানিস্তানে রাশিয়ার উপস্থিতিকে সমর্থন করেন কিনাপ্রশ্ন করেছিলাম।
উনি উত্তরে ‘হ্যাঁ’ বললে, আমি কী বলেছিলাম সবটুকু মনে নেইএইটুকু মনে আছে, সমাজতন্ত্র আমদানি রফতানি যোগ্য কিছু নয়জোর করে চাপিয়ে দেয়ারও কিছু নেইউনি আমাকে বেশি বুঝি বলে তিরস্কার করলে, বাবা জাসদ ছেড়ে দিলেনআমি আর ফিরে তাকাইনিবেরিয়ে গেলাম, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল থেকে

আমরা যারা মানুষের মুক্তির কথা বলি, সব রকম বৈষম্য অবসানের কথা বলি, কথা বলতে বলতে, আমরা এও জেনে যাই, গন্তব্য সাম্যবাদেএ ছাড়া কোনোকিছু অর্জন সম্ভব নয়
সমাজতন্ত্র হলো, সেই সাম্যবাদে পৌঁছার একটি অন্তর্বর্তীকালীন সময়, যে সময়টাতে আমরা ধাপে ধাপে এগিয়ে যাব সাম্যবাদের পথেপ্রশ্ন হলো, এই অন্তর্বর্তীকালীন সময়ের নামে কোনো দল হতে পারে কী? যারা বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখছেন, ভেবে দেখতে পারেন; ভেবে দেখার অনুরোধ থাকলো

কথা হলো, আমরা মাঠ পর্যায়েরর্মীরা অনেক কিছু বুঝি না বটেমোটা দাগে বুঝিমুক্তিযারা আমাদেরকে বোঝাতে চান, বোঝাবার দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছেন, দায়টুকু আর একটু বাড়িয়ে নিলে, অনেকগুলো ভ্রান্তি থেকে মুক্তি মিলে যেত আমাদের; কিন্তু মিলছে নাবরং ভ্রান্তি বাড়ছেকেন বাড়ছে?

একদল মধ্যবিত্ত সমাজতন্ত্র কায়েম করবে; এ স্বপ্ন তারা দেখতেই পারেনএতে দোষের কিছু নেইদোষ হলো, যাদের নেতৃত্বে এই সমাজতন্ত্র; তাদেরকে দূরে রেখে স্বপ্ন দেখায়কারা নেতৃত্ব দেবে? মধ্যবিত্ত? আমরা শ্রমিককৃষকদের কথা বলি; কিন্তু কতটুকু সময় ব্যয় করি, তাদেরকে নেতৃত্বদানে উৎসাহিত করণে

জানি, একটা কথা বলা হবে, মধ্যবিত্তও নিজের শ্রেণীচ্যূতি ঘটিয়ে, নেতৃত্বদানে সক্ষম হয়ে উঠতে পারেনকিন্তু আওয়ামী লীগ কী সেই রকম একটি দল ছিল? বলছি, একাত্তর পূর্বের কথা

আওয়ামী লীগের অধীনে যারা সমাজতন্ত্রের স্বপ্ন দেখতেন, তাদের বৌদ্ধিক অবস্থান নিয়ে প্রশ্ন করা দরকারআকাঙ্ক্ষা ও সদিচ্ছা মানুষকে সত্যের পথ দেখায়; কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয়, আমাদের মধ্যবিত্তের প্রগতিশীল সেই অংশ, সেই সত্যের সন্ধান পাননি

এই সমস্যাকে চিহ্নিত না করে, বরং একাত্তরে আওয়ামী লীগের একাংশের মধ্য থেকে ‘সমাজতন্ত্র’এর আওয়াজ উঠে আসায়, যারা বিগলিত; তাদের আন্তরিকতা নিয়েও প্রশ্ন করা দরকার
আওয়ামী লীগের কাঠামোর মধ্যে সমাজতন্ত্রের স্বপ্ন দেখা, সেই ভূত এখনও সক্রিয়জাতীয় সমাজতন্ত্রের প্রশংসা করতে গিয়ে যারা, এখনও অন্ধের মতো স্বপ্ন বিক্রি করে যাচ্ছে, তাদের মোহমুক্তি ঘটাবার জন্য, একটাই প্রশ্ন যথেষ্ট, সমাজতন্ত্র গন্তব্য বা জাতীয় হয় কী করে?

২৪ নভেম্বর ২০১৭

Advertisements

মতামত জানান...

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

w

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.