Archive for মে, 2014


লিখেছেন: নেসার আহমেদ

patriarchyনারীর ক্যাটাগরি ও সৌন্দর্য্য নির্মাণের একটা বিষয় মনে হয় সব সমাজেই ছিল ও আছে। খুব সংক্ষেপে যদি আমরা বিষয়বস্তুর পরে নজর দেই, তাহলে কিছু তথ্যচিত্র দাঁড় করানো যেতে পারে। প্রাচীন ভারতে বাৎস্যায়নের কামসূত্রে নারীকে তিন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করা হয়েছিল। মৃগী, বড়রা ও হস্তিনি। (বিস্তারিত…)


সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ করেছেন আভিভা শেন

২০১২ সালের এপ্রিলে স্মিথসনিয়ান ম্যাগাজিনে সাক্ষাৎকারটি প্রকাশিত হয়।

অনুবাদ: মেহেদী হাসান

Pete-Seeger-concert১৯৬০ সালের মার্চ মাসে ম্যাইনে প্রদেশের ব্রুনসিক শহরের বওডিয়ন কলেজে, একটি ক্যাম্পাস বেতার কেন্দ্র পিট সিগারের একটি কনসার্ট রেকর্ড করে। আটটি রীল থেকে রীল (reel-to-reel) ফিতা সেই রাতকে ধারণ করে আছে যা এখন একটি টুসিডি সেট এ প্রতিস্থাপিত হয়ে, এপ্রিলের ১৭ তারিখে স্মিথসোনিয়ান ফোকওয়েস রেকর্ডিংস থেকে বের হয়েছে। ১৯৬০ সালের বওডিয়ন কলেজ কনসার্টে, তার আঞ্চলিক কনসার্টগুলোর মধ্যে অন্যতম, সিগার পরিবেশন করেন সেই গানগুলোর প্রাথমিক ভার্সন যেগুলো এই কয়েক বছরের মধ্যে পুরো মানব জাতিকে সম্মোহিত করে ফেলেছে, যুদ্ধবিরোধী সেই গানটিও অন্তর্ভূক্ত “ফুলগুলো সব কোথায় গেল?” স্মিথসোনিয়ান ম্যাগাজিনের আভিভা শেনের সাথে আলোচনায় এই ব্যাপারগুলোর উপর আলোকপাত করেন প্রয়াত লোকসঙ্গীত শিল্পী পিট সিগার। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

modi-21হিন্দুত্ববাদের ধ্বজা উড়িয়ে নরেন্দ্র মোদি ভারতের রাষ্ট্রক্ষমতায় আসছেন এই সম্ভাবনা জোরদার হওয়ায় আমাদের দেশের লোকজনের উদ্বেগের শেষ নেই। এসব ব্যক্তির মোটামুটি একটা ধারণা হলো এই যে: ভারত একটি হিন্দু রাষ্ট্র, সে নিজ দেশের এবং বাংলাদেশ, পাকিস্তান সহ অন্যান্য সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিমঅধ্যুষিত দেশের জনগণের প্রতি বিরূপ মনোভাবাপন্ন। মোদি এবং তার নেতৃত্বাধীন দল বিজেপি হচ্ছে এই মতাদর্শের চূড়ান্ত অভিব্যক্তি। সুতরাং মোদি ক্ষমতায় এলে ভারতে মুসলমানদের ওপর নির্যাতন বৃদ্ধি পাবে, আমাদের দেশের ওপর তারা আরো বেশি আগ্রাসী নীতি চাপিয়ে দেবে। মূলধারার সংবাদ মাধ্যম এবং বুদ্ধিজীবীগণ যেভাবে মোদিকেন্দ্রিক রাজনীতির পক্ষেবিপক্ষে প্রচারণা চালায় এবং সেটা করতে গিয়ে তারা যে ভাষা ও চিন্তাধারার প্রয়োগ করে তাতে ধারণাটা অনেকটা এভাবেই আকার লাভ করে।
(বিস্তারিত…)


লিখেছেন: মেহরাব জাহিদ

abstract-art-34আমি বেওয়ারিশ হতে চেয়েছিলাম,

আমি চেয়েছিলাম প্রত্যেকটি অঙ্গ প্রতঙ্গ নিরীক্ষা হোক,

সবাই জানুক কিভাবে মৃত্যু হয়েছে।

চাহিদা, না লাগামহীন পণ্যের মোড়কে শ্বাসরোধ হয়েছে,

সবাই দেখুক।

আমি একটি বিলবোর্ড ধার চেয়েছিলাম, (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: মতিন বৈরাগী

.

abstract-art-floral-tree-landscape-painting-fresh-blossoms-by-madart-megan-duncansonসত্যের কথা আর বলোনা চারিদিকে জোয়ার বইছে

কেনা বলছে সত্যযা তোষামুদি আর সার্থপরতার ভাষা!

কে আর বাকি থাকছে মাঠ বা কেন্দ্রে!

সত্যের এই বিস্তার অসুখের মতো এক সংক্রমণ

ছড়িয়ে যাচ্ছে জলস্রোত (বিস্তারিত…)


 

লিখেছেন: সৌম্য মণ্ডল

NOTA_Indiaপ্রত্যেক কমিউনিস্ট মাত্রই জানে যে ভোট হলো কৌশল মাত্র, তাই প্রত্যেকবারের ভোটের মতো এইবার ১৬ তম লোকসভা ভোটেও কৌশলের ছড়াছড়ি। জ্ঞানীগুণীবিজ্ঞ ‘কমিউনিস্ট’ নেতারা বুদ্ধিদৃপ্ত কায়দায় প্রত্যেক ভোটে কৌশলের খেল খেলে যান, যেন বিরাট কিছু একটা হয়ে যাচ্ছে। তবে কৌশলটা যে কি, সেটা সবারই জানা, তথাকথিত মূল ধারার বাম দলগুলো সারা বছর মুখে পুঁজিবাদের বাপ বাপান্ত করে ছাড়লেও (অবশ্য পশ্চিমবঙ্গ, কেরলার মতো যেখানে তারা ক্ষমতায় ছিল বা আছে, সেখানে বিদেশি পুঁজিতো প্রগতিশীল, তার ফিরিস্তি দেওয়া হয়), সব দক্ষিনপন্থী দলগুলোর সাথে সমদূরত্ব বজায় রাখার কথা বললেও, বাম = প্রগতিশীল, শিক্ষিত, সংস্কৃতিবান; এরকম একটা হাবভাব এর মাধ্যমে একটা লেফট ব্র্যান্ড তৈরী করে, নিচুতলায় আন্দোলন শক্তিশালী করার স্বার্থে সংগ্রামী বাম সংগঠনগুলোর সাথে ঐক্য তৈরী করার ব্যাপারে নাক সিট্কালেও ভোটে এর ঠিক আগে সাধের ‘বৃহৎ বাম ঐক্যের’ কথা ভুলে গিয়ে এই কথিত কমিউনিস্ট সংগঠনগুলো দক্ষিনপন্থী দলগুলোরই হাত ধরে, কখনো আরজেডি, কখনো মুলায়াম, কখনো জয়ললিতা। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: শাহেরীন আরাফাত

Irom_Chanu_Sharmilaইরোম শর্মিলা চানু, তিনি কোনো রাজনৈতিক দলের কর্মী নন, তথাপি তিনি মণিপুরের জনগণের আন্দোলনসংগ্রামের অনস্বীকার্য প্রতিনিধিতে পরিণত হয়েছেন। অথচ কর্পোরেট মিডিয়ার প্রচারণায় না থাকায় তার অব্যাহত নীরব আন্দোলন থেকে গেছে অনেকাংশেই পর্দার আড়ালে, অনেকের কাছেই এই ইতিহাস এখনো অজানা। একটি গণবিরোধী আইন বন্ধের দাবী, তথা রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের বিরুদ্ধে প্রায় ১৩ বছর ধরে চলমান অনশনের ইতিহাস মানব সভ্যতায় বিরল। অথচ, তাকে নিয়ে লেখালেখিও যে খুব হয়েছে এমনটি নয়। উল্লেখ করার মতো গুটিকয়েক প্রকাশনা আর গ্রেপ্তারকৃত অবস্থায় কর্পোরেট মিডিয়ার কয়েক সেকেন্ডের খবরই কেবল তার জন্য বরাদ্দ ছিল। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: অজয় রায়

ukraine_map_crimea_sevastopol_simferopolগত ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে ইউক্রেনে উডার, হোমল্যান্ড এবং সভোবোদার মতো চরম দক্ষিণপন্থী বিরোধী দলগুলি সহিংস বিক্ষোভের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করে নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি ভিক্টর ইয়ানুকোভিচকে। যিনি ইউরোপীয় ইউনিয়নের পরিবর্তে রাশিয়ার সঙ্গে বাণিজ্য চুক্তি করেছিলেন। সেজন্যই ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাকে অপসারণে মদত জুগিয়েছে। আর ভূরাজনৈতিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ এই অঞ্চলে কর্তৃত্ব কায়েম করে রাশিয়াকে চাপে ফেলতে কিয়েভে গড়েছে এমন এক পুতুল সরকার, যা তাদের নির্দেশিত জনবিরোধী নয়াউদারবাদী সংস্কার কর্মসূচী সম্পূর্ণ ভাবে কার্যকর করতে প্রস্তুত। (বিস্তারিত…)