Archive for ডিসেম্বর, 2013


লিখেছেন: যোবায়ের আল মাহমুদ

ict-1লিবারেল ডেমোক্রেসি পুঁজিতান্ত্রিক মতাদর্শের রাজনৈতিক হাতিয়ার হলেও এখানে চিন্তা ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতার একটা জায়গা রাখা হয়েছে, কেননা লিবারেলিজম মানুষের ব্যক্তিগত বিকাশের জন্য নিজস্ব চিন্তা ও তৎপরতার স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে। অবশ্য লিবারেলিজম এর স্বাধীনতা তত্ত্বের নানান ক্রিটিকও আছে তা এখানে আলোচনা করার সুযোগ নেই। লিবারেলিজমের এই প্রত্যয় ও ধারণার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশের সংবিধানও এই চিন্তা, মতপ্রকাশ ও বাক স্বাধীনতার স্বীকৃতি ও সুরক্ষাকে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ কাজ বলে গণ্য করে। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: শান্তনু সুমন

শহীদ কমরেড সিরাজ সিকদার

শহীদ কমরেড সিরাজ সিকদার

তোমাকে আমারা ঠিকই চিনে নিয়েছি

জেনেছি তোমার গৌরবময় বিপ্লবী জীবন গাঁথা

যতই তোমাকে ওরা আড়াল করতে চাক

ইতিহাসকে যতই বিকৃত করুক নিজেদের হীন স্বার্থে

 

দেশমাতৃকার জন্য তোমার নিখুত ভালোবাসা ছিল বলে

তুমি বেছে নিয়েছিলে গেরিলা জীবন

পূর্ববাংলার মানুষের মুক্তির জন্য (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: শাহেরীন আরাফাত

Arvind_Kejriwal_aam_aadmi_party_5অনলাইনে বা ফেসবুকে বন্ধুতালিকার অনেককেই দেখলাম ভারতের রাজধানী দিল্লীতে নতুন আত্মপ্রকাশ করা আম আদমি পার্টির রাজ্য সরকার গঠন করাকে কেন্দ্র করে ভীষণ রকম উল্লোসিত, কারো কারো মাঝে সেই পার্টির পক্ষে প্রচারণা চালাতেও লক্ষ্য করলাম। আর তাই এ প্রসঙ্গে দুয়েকটা কথা বলাই এই লেখার মূল উদ্দেশ্য। প্রথমেই দুটো প্রশ্ন করছি, আপনার কাছে, আপনাদের কাছে, সেই সাথে আমার নিজের কাছে গণতন্ত্র বলতে আমরা আদতে কি বুঝি? আর ভারতের রাষ্ট্রব্যস্থাটাই বা কেমন? (বিস্তারিত…)


তারিখঃ ২৭শে ডিসেম্বর, ২০১৩

election-2013ভারতআমেরিকার মদদে আওয়ামী ও বিএনপি জোট আজ দেশব্যপী ‘গদী’ দখলের রক্তাক্ষয়ী সংঘাতে নেমেছে। সম্পদশালী হবার লোভে একদিকে যেমন এরা বহিঃশক্তির পদলেহন করছে, অন্যদিকে দেশের অভ্যন্তরে মারামারিকাটাকাটি করে জনজীবন বিপন্ন করে তুলেছে। সাধারণ মানুষ আজ ঘরেবাইরে কোথাও নিরাপদ নয়। আজ বাসে পেট্রোল বোমা খেয়ে মরছে নয়ত কাল ককটেল বোমায়। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: অজয় রায়

কমরেড মোহন বৈদ্য "কিরণ"গত ১৯শে নভেম্বর নেপালের পার্লামেন্ট তথা সাংবিধানিক গণপরিষদের ভোট হয়েছে। তাতে মোট ৬০১টি আসনের মধ্যে ১৯৬টি জিতে প্রথম স্থানে রয়েছে নেপালি কংগ্রেস। নেপালের কমিউনিস্ট পার্টি (সংযুক্ত মার্কসবাদীলেনিনবাদী) [সিপিএন (ইউএমএল)] পেয়েছে ১৭৫টি আসন। আর মাত্র ৮০টি আসন নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ইউনিফায়েড কমিউনিস্ট পার্টি অব নেপাল (মাওবাদী) [ইউসিপিএন(এম)]। এদিকে ২৪টি আসন মিলেছে রাজতন্ত্রের সমর্থক রাষ্ট্রীয় প্রজাতন্ত্র পার্টিনেপাল।[] (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

muntasir-mamun-1গত ২০ ডিসেম্বর শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী গণসম্মিলনে’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের শিক্ষক এবং ঘাতকদালাল নির্মূল কমিটির সহসভাপতি মুনতাসীর মামুন বলেছেন, “আমাদের এখনি সিদ্ধান্ত নিতে হবে, এ দেশে কারা রাজনীতি করবেপাকিস্তানি না বাঙালিরা। বাংলাদেশে বাঙালি ছাড়া আর কারো রাজনীতি করার অধিকার নেই।” সম্মেলনে জামায়াতে ইসলামীর পাশাপাশি বিএনপির রাজনীতিও নিষিদ্ধের দাবি তুলেছেন তিনি। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: সাফ্‌ফাত হোমায়রা

art works-10-হয়তো আমি জাতিস্মর নই,

তবুও দিব্য করে বলে দিতে পারি

গতজন্মে নির্ঘাত মানুষরূপে পৃথিবী চষেছি

নইলে এ জন্মে কি আর কুকুর হই! (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: অন্বেষা বসু

art-1-ছুটি,

শুকনো পাতার মত সন্ধ্যে নামছে আমার শহরে। শীতের সন্ধ্যে। মনকেমনের সন্ধ্যে। আমার পাড়ায় এখন বিষণ্ণতার আলো। দাদা বাড়ি ফেরেনি এখনও। বাবার ঘরে রেডিও চালানো। গজল। মীর্জা গালিব।

হাজারোঁ খ্বাহিশে অ্যায়সি কি হর খ্বাহিশ পে দম নিকলে

বহুত নিকলে মেরে আরমান লেকিন ফির ভি কম নিকলে” (বিস্তারিত…)


তারিখ: ১৬/১২/২০১৩

আসুন ১৬ ডিসেম্বর’ ১৩ শহীদ কমরেড মোফাখ্খার চৌধুরী’র ১০ম শহীদ দিবস পালনের মধ্যদিয়ে নির্বাচনের নামে প্রতিক্রিয়াশীলদের চক্রান্তষড়যন্ত্রের স্বরূপ উন্মোচন করি।

mufakhkhar-chowdhury-1রুখে দাঁড়াও ক্রসফায়ার।” এই শ্লোগান ধারণ করে আজ ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৩ মহান মাওবাদী নেতা শহীদ কমরেড মোফাখ্খার চৌধুরী’র ১০ম শহীদ দিবসে গণমুক্তির গানের দল জাতীয় জাদুঘরের সামনে বিকাল ৩.৩০টায় প্রতিবাদী আলোচনা ও গণসাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এ্যাডভোকেট যাহেদ করিম আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। ২০০৪ সালে ১৬ই ডিসেম্বরে “ক্রসফায়ার” নাটকের নামে প্রতিক্রিয়াশীল রাষ্ট্র মহান মাওবাদী নেতা পূর্ববাংলার কমিউনিষ্ট পার্টি (এম.এল)-এর সম্পাদক কমরেড মোফাখ্খার চৌধুরীকে নিমর্মভাবে হত্যা করে। সভায় বক্তারা বলেন, এনকাউন্টার, ক্রসফায়ার, গুম খুনের ‘বন্দুকযুদ্ধ’ নাটকের যে ধারাবাহিকতা অব্যাহতভাবে বর্তমান আছে তার মূল লক্ষ্য হলো মাওবাদী কমিউনিষ্ট বিপ্লবীরা। এর কারণ খুব স্পষ্ট। বাংলাদেশের মত মার্কিনের তাবেদার তথা সামাজ্যবাদ, সম্প্রসারণবাদ, এককথায় শোষকশ্রেণীর স্বার্থরক্ষাকারী সকল রাষ্ট্রের জন্যই গণশোষণ, লুন্ঠন, প্রতারণা ও হত্যার রাজনীতির পথে প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় মাওবাদী কমিউনিষ্ট বিপ্লবীরা। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: জুয়েল থিওটোনিয়াস

democracy-1-1চলছে দুঃসময়। তবে প্রলয় নয়। তাতে কী? দুঃসময় তো দুঃসময়ই। এতে আমরা উদ্বিগ্ন, তাই তো? এতে করে কী সমাধান হলো? হলো না। শুধু উদ্বিগ্ন হয়ে সমাধান আজ পর্যন্ত হয়নি, যতক্ষণ না পর্যন্ত সেই উদ্বেগ কার্যকরী কোন ফল আনতে পেরেছে, অন্তত প্রচেষ্টাগত উদযোগ নেওয়া হয়েছে।

বর্তমান দুঃসময় একদু’দিনের ফল নয়। তাছাড়া নির্বাচনের আগ দিয়ে এমনটা হয়ই, যা আমাদের কুচর্চার প্রতিফলন। কিন্তু তাই বলে গণমানুষ তার বলি হবে কেন? তারা তো কোন রাজনৈতিক দলের হয়ে আত্মাহুতির পথ বেছে নেয়নি, যেসব রাজনৈতিক দল বর্তমানে চলমান অপসংস্কৃতির জন্য দায়ী। (বিস্তারিত…)