Archive for নভেম্বর, 2013


অনুবাদ: মেহেদী হাসান

patricio-guzman-1প্যাট্রেসিয়া গাজমেন ১৯৪১ সালের ১১ আগষ্ট চিলির সান্তিয়াগোতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একই সাথে তথ্যচিত্র নির্মাতা, চিত্রনাট্যকার, চিত্রগ্রাহক এবং একজন অভিনেতা। তিনি মাদ্রিদের সরকারী চলচ্চিত্র বিজ্ঞান স্কুলে তথ্যচিত্রের উপর অধ্যয়ন করেন। তার নির্মিত তথ্যচিত্রগুলো আন্তর্জাতিক ফেস্টিভ্যালে নিয়মিতভাবে নির্বাচিত ও পুরস্কৃত হয়ে আসছে। আলেন্দে সরকারের পতনের উপর ভিত্তি করে ১৯৭৩ সালে তিনি নির্মাণ করেন পাঁচ ঘন্টা দীর্ঘ “ব্যাটল অফ চিলি”। সিনেস্টে ম্যাগাজিন এই তথ্যচিত্রটিকে “বিশ্বের শ্রেষ্ঠ দশটি রাজনৈতিক চলচ্চিত্রের একটি” হিসেবে মনোনীত করে। সামরিক অভ্যুত্থানের পর গাজমেনকে নির্বাসনে পাঠানোর হুমকি প্রদান করা হয় এবং তিনি গ্রেফতার হয়ে জাতীয় স্টেডিয়ামের অভ্যন্তরে দুই সপ্তাহ কাটান, সেসময় কাউকে তার অবস্থান সম্বন্ধে জানাতে পারেন নি। তিনি দেশ ত্যাগ করেন ১৯৭৩ সালের নভেম্বর মাসে। কিউবা, স্পেনে থাকার পর শেষে চলে যান ফ্রান্সে, যেখানে তিনি নির্মান করেন “ইন দ্যা নেম অফ গড” (গ্রান্ড প্রাইজ, ফেস্টিভ্যাল অফ পপলি, ১৯৮৭), “দ্যা সাউদার্ন ক্রস” (গ্রান্ড প্রাইজ, ফেস্টিভ্যাল ভু সুর লেস ডকস, মারসিলি, ১৯৯২) “চিলি, অবস্টিনেট মেমরি” (গ্রান্ড প্রাইজ, ফেস্টিভ্যাল অফ তেল আবিব, ১৯৯৯), “দ্যা পিনোশে কেস” (ইন্টারন্যাশনাল ক্রিটিকস উইক, ক্যানাস, ২০০২), এবং “সালভাদর আলেন্দে” (অফিসিয়াল সিলেকশন, ক্যানাস, ২০০৪)। ২০০৫ সালে তিনি নির্মাণ করেন “মাই জুলভার্ন”। ইউরোপ এবং ল্যাটিন আমেরিকাতে তিনি তথ্যচিত্রের উপর অধ্যাপনা করেন। তিনি “ইন্টারন্যাশনাল ডকুমেন্টারী ফেস্টিভ্যাল অফ সান্তিয়াগো” প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক। তিনি এখন ফ্রান্সে বসবাস করছেন।

চিলির নির্মাতা প্যাট্রেসিয়া গাজমেনের সাথে তার সাম্প্রতিক তথ্যচিত্র, নস্টালজিয়া ফর দ্যা লাইট, সমন্ধে কথা বলেছেন রব হোয়াইট। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: স্বপন মাঝি

world-to-winছাত্রছাত্রীরা চলে যাবার পর ছাপড়ার ঘরটার মধ্যে সে একা হয়ে যায়। ভাঙ্গা বেড়া, ভাঙ্গা জানালা। এ ঘরের মালিক একজন কোটিপতি। কোটিপতিদের কেউ এখানে থাকেন না। লজিং মাস্টারদের জন্য নির্মিত এ ঘরটা তার কাছে বেশ লাগে। জানালার কাছে বসলে পশ্চিমের আকাশ দেখা যায়। বুড়িগঙ্গার ওপর দিয়ে যখন বড় কোন জাহাজ যায়, তার মাস্তুল পর্যন্ত দেখা যায়। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন:মেহেদী হাসান

stop-violence-against-women-1-কুসংস্কার প্রবনতা, ধর্মীয় গোঁড়ামি, অজ্ঞানতা ও অসচেতনতার মানদণ্ডে আমাদের গ্রামে স্থায়ীভাবে বসবাস করা প্রায় সকল মানুষের অবস্থান অনেকটাই কাছাকাছি। তাদের চিন্তাচেতনার মধ্যেও তেমন কোন হেরফের সচারচর লক্ষ্য করা যায় না। অর্থনৈতিক দিক থেকে তারা উঁচুনিচু হলেও আর অন্যান্য সকল দিক থেকে সকলেই প্রায় একই মাপের। (বিস্তারিত…)


matin-bairagiআজ ১৬ নভেম্বর, ২০১৩ কবি মতিন বৈরাগীর ৬৭ তম জন্মদিন। কবি মতিন বৈরাগী ৭০ দশক থেকে আমাদের কাব্যাঙ্গনে সক্রিয় রয়েছেন। বর্তমান সময় কাল পর্যন্ত তাঁর প্রকাশিত কাব্যের মধ্যে ১. বিষণ্ন প্রহরে দ্বিধাহীন, . কাছের মানুষ পাশের বাড়ি, . খরায় পীড়িত স্বদেশ, . আশা অনন্ত হে, . বেদনার বনভূমি, . অন্তিমের আনন্দ ধ্বনি. .অন্ধকারে চন্দ্রালোকে, . দূর অরণ্যের ডাক শুনেছি, . স্বপ্ন এবং স্বাধীনতার গল্প, ১০. অনেক কিছু অন্যরকম, ১১. খণ্ডে খণ্ডে ভেঙে গেছি, এছাড়া নির্বাচিত ও কাব্য সমগ্র রয়েছে তাঁর। এছাড়া অসংখ্য কবিতা ছাপা হয়েছে দেশের বিভিন্ন সামযিকী, পত্রপত্রিকায়। ইদানিং তিনি কবিতা বিষয়ে প্রবন্ধ, দেশের খ্যতিমান কবিদের কাব্যআলোচনাও করছেন। তিনি নিয়মিত লিখছেন মঙ্গলধ্বনি’তে।

তার জন্মদিনে মঙ্গলধ্বনি’র পক্ষ হতে শুভকামনা রইলো। আমরা কবি’র দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

এই লিঙ্ক থেকে মঙ্গলধ্বনি’তে প্রকাশিত কবি মতিন বৈরাগীর কবিতাগুলো পড়তে পারেন।।

মতিন বৈরাগী’র কবিতা


mongoldhoni-cover-1আপনাদের ছোটকাগজ ‘মঙ্গলধ্বনি’ পড়ছি। একবার পড়েছি। আরো পড়তে হবে, মানে সংগ্রহে রাখতে হবে। অনেক দরকারি কাজ হয়েছে। এ্ইভাবে কাজ তো তেমন হয় না। তাই প্রথমেই যারপরনাই প্রীতি জানায়। প্রাণপ্রকৃতিপ্রতিবেশের বিষয়সমূহ ভালোই আছে। এতে একধরনের মিশ্রণ হয়েছে। একেবারে রাজনীতির কাগজও নয়, কেবল নৈতিকতা আছে তাও নয়। আবার দেখা গেল, দুইতিনটা কবিতা বিনে সাহিত্যের আর কিছু নাই। ফলে এর শিল্পসংস্কৃতির চরিত্রটা নির্ণয় করা গেল না। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: ফারহান হাবীব

election-2013এই লেখাটা যখন লেখা শূরু করেছিলাম তখন প্রায় রাত সাড়ে দশটা। লেখা শুরুর প্রায় মিনিট দশেক আগে ঔষধ কিনতে বের হয়েছিলাম। অনেক খোজাখুজি করে একটি দোকানে ঔষধ পাই। পল্টন এলাকা সাধারণত রাত ১টা পর্যন্তও সরগরম থাকে। কিন্তু আজ চিত্রটা পুরোই ভিন্নরকম। রাত সোয়া দশটায় ঢাকাকে একটা মৃত্যুপুরী মনে হয়েছে আমার। দু’একটা রিকসা চলছে আর অল্প কিছু মানুষ। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: মিঠুন চাকমা

CHT-7পর্যটন কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ইউনিয়নের রুইলুই এলাকায়। গত ০৬ নভেম্বর এ কথা ঘোষণা দিয়ে এসেছেন দেশের সামরিক বাহিনীর চট্টগ্রাম ডিভিশনের প্রধান মেজর জেনারেল সাব্বির আহম্মেদ। (সূত্র: সিএইচটি২৪.কম)

না, তিনি পর্যটনমন্ত্রী নন এবং সম্ভবত পর্যটন সমৃদ্ধি বা উন্নয়নের দায়িত্বও তিনি পাননি। দেশে সেনাশাসন বা সামরিক শাসনও চলছে না। (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

communist-signবাংলাদেশের বামপন্থী, এমনকি কমিউনিস্ট নামে পরিচিত অধিকাংশ রাজনৈতিক দলের অবস্থানগত দেউলিয়াত্ব এখন যে পর্যায়ে পৌঁছেছে তা নিয়ে কথাবার্তা বলাটাও খুব যন্ত্রণাদায়ক ব্যাপার। এই অবস্থানগত দেউলিয়াত্ব তাদের তাত্ত্বিক দেউলিয়াপনা থেকেই উদ্ভূত হয়েছে। বর্তমানে এই চরম দেউলিয়াত্বপ্রাপ্ত রাজনীতির পরাকাষ্ঠা প্রদর্শনের দায়িত্ব নিয়েছে সিপিবিবাসদ ঐক্যজোট। (বিস্তারিত…)


art-1-অব্যক্ত স্মৃতি

অব্যক্ত স্মৃতিগুলো আমাকে প্রচন্ড ধেঁয়ে বেড়াচ্ছে

কাকের পেছনে মৌমাছিরা যেভাবে ধাওয়া করে।

সদ্য যৌবনপ্রাপ্ত বালকের মেয়েদের পিছনে ঘুরঘুর করা,

স্তন, নিতম্ব, মূত্রস্থান নিয়ে অযথা গবেষনা করা।

সমবয়সী মেয়েদের সাথে কথা বলে ঊষ্ণ গর্ববোধ, (বিস্তারিত…)


লিখেছেন: আবিদুল ইসলাম

OLYMPUS DIGITAL CAMERA২০০৬ সালে বৃটিশ মালিকানাধীন গ্লোবাল কোল ম্যানেজমেন্ট (জিসিএম) রিসোর্সেসএর স্থানীয় প্রতিষ্ঠান এশিয়া অ্যানার্জি কর্তৃক দিনাজপুরের ফুলবাড়িতে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা উত্তোলনের প্রচেষ্টার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর সম্মিলিত প্রতিরোধ এক নতুন রূপ পরিগ্রহ করে। তৎকালীন বিএনপি সরকারের সাথে সমঝোতার মাধ্যমেই এশিয়া অ্যানার্জি পরিবেশবিধ্বংসী এই প্রকল্প বাস্তবায়নের চক্রান্ত করেছিল। সে সময় সমগ্র ফুলবাড়ির জনগণ এই চক্রান্ত প্রতিরোধের জন্য যে ভূমিকা গ্রহণ করেন, তা এদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ক্ষেত্রে এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে আছে। ঐ বছরের ২৬ আগস্ট প্রতিবাদী মিছিলে তৎকালীন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী গুলি চালালে আমিনুল, তরিকুল ও সালেকীন নামে তিনজন তরুণ নিহত হন। (বিস্তারিত…)