শহীদ কমরেড সিরাজ সিকদারের ৩৭তম হত্যা দিবস, জাতীয় শহীদ দিবসে জনগণতান্ত্রিক পাঠচক্র (People’s Democratic Study Circle-PDSC)’এর বিবৃতিঃ

সংগ্রামী সহযোদ্ধাগণ,

১৯৭৫ সালের ২রা জানুয়ারি, ফ্যাসিস্ট, স্বৈরশাসক শেখ মুজিবুর রহমান ক্ষমতায় থাকাকালে রাষ্ট্রীয় হেফাজতে নির্যাতনের পর হত্যা করা হয় ‘পূর্ব বাংলার সর্বহারা পার্টি’র প্রতিষ্ঠাতা, মুক্তিযোদ্ধা, দেশপ্রেমিক ও মহান বিপ্লবী নেতা কমরেড সিরাজ সিকদারকে। পরবর্তীতে এই হত্যাকাণ্ডকে ‘এনকাউন্টার’ নামক সাজানো নাটক হিসেবে মঞ্চস্থ করা হয়। তথাকথিত কমিউনিস্ট নামধারী কিছু সংশোধনবাদী কর্তৃক এই হত্যাকান্ডকে ‘ডাকাত অধ্যায়ের পরিসমাপ্তি’ হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়।

বিপ্লবীদের ‘সন্ত্রাসবাদী’ আখ্যা দিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা রাষ্ট্রের মাস্টার প্ল্যানিংএর মধ্যে অন্যতম। পশিমবঙ্গের সরোজ দত্ত, বিপ্লবী চারু মজুমদারের মত কমরেড সিরাজ সিকদারকেও পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়। কিন্তু এখানেই রাষ্ট্র থেমে থাকেনি, থাকার কথাও নয়। যার ফলশ্রুতিতে পরবর্তীতে হত্যা করা হয় কমরেড মনিরুজ্জামান তারা, কমরেড কামরুল মাস্টার, কমরেড মুফাখখার, কমরেড মিজানুর রহমান (কমরেড টুটুল)সহ অগণিত বিপ্লবী রাজনীতির নেতাকর্মীদের। এই হত্যাকাণ্ড অব্যাহত আছে আজো। সাম্প্রতিক সময়ে ভারত রাষ্ট্র হত্যা করেছে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মাওবাদী)’র মুখপাত্র কমরেড আজাদ এবং অন্যতম প্রধান নেতা কমরেড কিষানজী’কে। আর হত্যার পর যথারীতি জনগণের সামনে ‘এনকাউন্টার’, ‘ক্রসফায়ার’, ‘বন্দুক যুদ্ধ’সহ বিভিন্ন নামে নাটক সাজিয়ে প্রতারণা করা হয়। আর এই কপটতার সঙ্গী হয় দালাল মিডিয়া।

এই সন্ত্রাসী রাষ্ট্রযন্ত্র বেশ ভাল করেই জানে, এই বিপ্লবী রাজনীতির ভিত্তি হলো মতাদর্শ; মার্কসবাদলেনিনবাদমাওবাদ। আর মতাদর্শিকভাবে না পেরে ওঠায় তারা বিদ্রোহ দমনের নামে পার্টির বছরের পর বছর ধরে গড়ে ওঠা বিপ্লবী নেতাদের হত্যা করে পার্টিকে আদর্শিক বিভেদে খণ্ড খণ্ড করে প্রত্যক্ষভাবে ধ্বংস করে দিচ্ছে। তবে এই ঠান্ডা মাথায় পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ডে শহীদের তালিকা দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে; কারণ সর্বহারার মতাদর্শের মৃত্যু নেই, তাই বিপ্লবীদেরও নিঃশেষ করা সম্ভব নয়।

আজ ২রা জানুয়ারি ২০১২, জাতীয় শহীদ দিবসে আমরা, অর্থাৎ “জনগণতান্ত্রিক পাঠচক্র (PDSC)” পূর্ব বাংলার সাহসী সন্তান, মুক্তিযোদ্ধা, দেশপ্রেমিক ও মহান মাওবাদী নেতা শহীদ কমরেড সিরাজ সিকদারকে পরম শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি। তিনি মানুষের মুক্তির জন্য আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন, মুক্তির মতবাদ মার্কসবাদলেনিনবাদমাওবাদকে ধারণ করেছেন। আমরা দেশবাসীর কাছে এই মহান বিপ্লবীর আদর্শ, অর্থাৎ গণমুক্তির পথকে ধারণ করার এবং যাবতীয় অন্যায়অত্যাচার ও নিপীড়ণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামার আহ্বান জানাচ্ছি।

প্রিয় তরুণসমাজ ও দেশপ্রেমিকমহল,

আসুন আমরা মুক্তির লক্ষ্যে কাজ করি। লড়াই ছাড়া প্রকৃত মুক্তি সম্ভব নয়। আসুন, মানবমুক্তির লক্ষ্যে বিশ্বসর্বহারার মতবাদ, মার্কসবাদলেনিনবাদমাওবাদের অনুশীলন করি, দেশের নির্যাতিতনিপীড়িত, মেহনতি জনসাধারণ, কৃষকশ্রমিকের সাথে মিশে জনগণের রাষ্ট্র কায়েমের দিকে এগিয়ে যাই।

শহীদ কমরেড সিরাজ সিকদার, লাল সালাম!

সর্বহারার মুক্তি সংগ্রামে সকল শহীদগণ, লাল সালাম!

মার্কসবাদলেনিনবাদমাওবাদ জিন্দাবাদ!

সাম্রাজ্যবাদ, সংশোধনবাদ, সম্প্রসারণবাদ নিপাত যাক!

নিপীড়ক রাষ্ট্র নিপাত যাক!

বিপ্লব চিরজীবি হোক!

যোগাযোগঃ  pdsc_01@live.com

Advertisements

মতামত জানান...

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s