লিখেছেন: সারোয়ার তুষার

বহুদিন পর উঁহু, সম্ভবত এই প্রথম বস কোনো কাজের কাজ দিয়েছে বলে মনে হলো তার। চাকরিতে জয়েন করার পর এ পর্যন্ত যেসব অ্যাসাইনমেন্ট তূর্য পেয়েছে, সেসব শুধুমাত্র জঘন্যই না, অনেকটা ‘ডোন্ট ডিস্টার্ব দ্য বিগ ব্রাদার’ টাইপ। তারপরেও করতে হতো। করতে হয়। অন্নসংস্থান বলে কথা। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষ করার পর কি করবো, কি করবো এই যখন অবস্থা তূর্যের, তখন বন্ধুস্বজন অনেকেই সাংবাদিকতায় ঢোকার পরামর্শ দিয়েছিল। সেই অর্থে আটটাপাঁচটা ডিউটি নাই, ফ্রিডম আছে। আর তার যেহেতু লেখালেখির বাতিক আছে, সেই সুযোগও নাকি পাওয়া যাবে। শিক্ষকতায় ঢুকতে পারলে নাকি সবচেয়ে ভালো হতো অবারিত স্বাধীনতা, আবার জাতির বিবেকও নাকি হওয়া যায়! শুনেই তূর্যের ভিড়মি খাওয়ার মতো অবস্থা হয়েছিল, আরঙ্গে সঙ্গেই সিদ্ধান্ত নিয়ে নিলো যাক, তাহলে সাংবাদিকতাই ভালো। শিক্ষক হয়ে জাতির বিবেক মারার মত রুঢ় পরিহাস তো অন্তত করতে হবে না। Read the rest of this entry »


লিখেছেন: অজয় রায়

এ বছর গোল্ডম্যান পরিবেশ পুরস্কার জয়ী উড়িশ্যার সামাজিক ন্যায়ের আন্দোলনের নেতা প্রফুল্ল সামন্তরা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তার কর্পোরেটবান্ধব নীতি পুনর্বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছেন।[] ডোঙ্গরিয়া কোন্ড আদিবাসীদের ভূমির অধিকার সুনিশ্চিতকরণ এবং বৃহদায়তন, উন্মুক্ত আকরিক অ্যালুমিনিয়াম খনি প্রকল্প থেকে নিয়মগিরি পাহাড় রক্ষা করতে সামন্তরা বারো বছরব্যাপী আইনি লড়াই চালান। যা নিয়মগিরির বুকে স্থানীয় আদিবাসীদের চলমান গণসংগ্রামেরই পরিপূরক ছিল। Read the rest of this entry »


লিখেছেন: এম.এম. হাওলাদার

.

আকাশেবাতাসে

অশুভ কানাকানি,

আঁধার ঘনিয়ে

অমঙ্গলের ধ্বনি।

.

বিবর্ণ পতাকা!

শকুনের উল্লাস!

সোনার বাংলা

অন্ধকারে গ্রাস। Read the rest of this entry »


লিখেছেন: অয়ন চৌধুরী

.

উত্তাল সত্তরের দশক

চীনের চেয়ারম্যান আমাদের চেয়ারম্যান

লাঙ্গল যার জমি তার

গ্রাম দিয়ে শহর ঘেরাওয়ের স্বপ্ন বুকে নিয়ে

যে তরুণরা গ্রামের পথ ধরেছিল

এখনো তারা ফিরে আসেনি Read the rest of this entry »


লিখেছেন: সৌম্য মন্ডল

নকশালবাড়ির রাজনীতি নিয়ে কিছু বিভ্রান্তি সম্পর্কে আলোচনা করার জন্য এই লেখা। যারা সব জানেন, এটা তাদের জন্য লেখা নয়, বরং যারা জানতে চান এ লেখা তাদের জন্য।

) নকশালবাড়ি থেকে অনেক বড় বড় সশস্ত্র কৃষক আন্দোলন বাংলায় বা ভারতে ঘটে গেছে। ঘটে গেছে এবং ঘটে চলেছে অনেক প্রতিরোধ। কিন্তু তবুও সেই আন্দোলনগুলো থেকে নকশালবাড়ির নাম স্বতন্ত্র। কিন্তু কেন? কারণ নকশালবাড়ি আন্দোলন শুধু ১৯৬৭ সালের একটি গ্রাম, বা একটি কৃষক আন্দোলনের নাম নয়। যদি তাই হতো, তাহলে অন্যান্য আন্দোলনগুলোর থেকে আলাদাভাবে নকশালবাড়ির গুরুত্ব থাকতো না। নকশালবাড়ি একটা বিশেষ রাজনৈতিক লাইন বা আন্ডারস্ট্যান্ডিংএর নাম। Read the rest of this entry »


বস্তার – রাষ্ট্রকর্পোরেটহিন্দুত্ববাদের যৌথ সন্ত্রাস’ বইটি প্রকাশিত হয়েছে। মধ্যভারতে রাষ্ট্রীয় শোষণনিপীড়নের বিপরীতে আদিবাসীদের সংগ্রামের চিত্র উঠে এসেছে এ গ্রন্থে।

বইটি পাওয়া যাচ্ছে শাহবাগ, আজিজ মার্কেটের ‘প্রথমা’, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার ‘দেবদারু’তে।

অনলাইনে rokomari.com থেকেও সংগ্রহ করা যাবে।

এছাড়া ০১৯৮০১৩৭৯৫৬ (উৎস পাবলিশার্স) নম্বরে যোগাযোগ করেও বইটি সংগ্রহ করা যাবে।

কলকাতার পরিবশক সেতু প্রকাশনীতে আগামী মাসে বইটি পাওয়া যাবে।

Read the rest of this entry »


১৪ মে ২০১৭

ল্যাম্পপোস্ট ও গণমুক্তির গানের দল যৌথ উদ্যোগে আজ ১৪ মে ২০১৭ (রবিবার), বিকাল ৫টা, জাতীয় জাদুঘর গেটএর সামনে, শাহবাগ, ঢাকাতে ভারতবর্ষে শ্রমিকশ্রেণীর মতাদর্শের উচ্চতর স্তর মাওবাদের প্রবক্তা, ভারতবর্ষে কমিউনিস্ট আন্দোলনের নেতৃত্বের কর্তৃত্ব অবিসংবাদিত নেতা মহান শিক্ষক কমরেড চারু মজুমদারের জন্মশতবর্ষ এবং মহান নকশালবাড়ি কৃষক অভ্যুত্থানের অর্ধশতবর্ষ উদযাপন করা হয়। Read the rest of this entry »


লিখেছেন: অজয় রায়

‘‘দাদা গো, আমরার জীবন বাঁচাইবার শেষ অবলম্বনটাও ভাইস্যা গেলো”, হাওরের এক কৃষক যেমন জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে। আগাম বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাংলাদেশের হাওর অঞ্চলের সাতটি জেলা – কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোনা, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, সিলেট, মৌলভীবাজার ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া। এ অঞ্চলের প্রধান ফসল বোরো ধান নষ্ট হয়ে গেছে। বিষক্রিয়ায় বহু মাছ ও হাঁস মারা গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত অধিবাসীদের জন্য ত্রাণ সহায়তার অপ্রতুলতা নিয়েও অভিযোগ উঠছে। যখন বহু মানুষ একেবারে নিঃস্ব হয়ে গেছেন, তাদের অনেকে পরিবার নিয়ে বিভিন্ন শহরে চলে যাচ্ছেন কাজের সন্ধানে। Read the rest of this entry »


লিখেছেন: সব্যসাচী গোস্বামী

এক.

তার আসল নাম ছিল ‘বিপদ তাড়ন’। সকলে কিন্তু তাকে ‘বিপদ’ বলে ডাকতো। কেউ কেউ আবার পিছনে তাকে ‘আপদ’ বলেও ব্যঙ্গ করতোসে যেদিন জন্মায়, সেদিনই তার বাবার কোম্পানির লকআউট উঠে যায়। লকআউটের সাত মাস বড় কঠিন দিন গেছে। কোম্পানির গেটের তালা আবার খুলে যাওয়ায় সবার মনে একটু স্বস্তি হয়েছিল কেন না, তখন তিনিই ছিলেন পরিবারের একমাত্র রোজগেরে সদস্য। জোড়া খুশির খবরে আনন্দিত হয়ে ঠাকুমাই নাতির নাম রেখেছিল ‘বিপদ তাড়ন’। Read the rest of this entry »


লিখেছেন: অজয় রায়

একদিন সকালে দেখা যায় শিশুদের খেলার মাঠে দুটি নাৎসিদের প্রতীকী স্বস্তিকা চিহ্নের পাশে লেখা রয়েছে গো ট্রাম্প। গত নভেম্বরের মাঝামাঝি মার্কিন মুল্লুকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পরেই এ ঘটনা ঘটে। সাউদার্ন পভার্টি ল সেন্টারের দেওয়া তথ্য অনুসারে, ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পরবর্তী এক মাসের মধ্যেই সহস্রাধিক বিদ্বেষমূলক অপরাধ বা হেইট ক্রাইমের ঘটনা ঘটেছে সেদেশে।[] আর এখনও তা চলছে। নিশানায় রয়েছেন মূলত সংখ্যালঘু, অভিবাসী ও মুসলিমরা। Read the rest of this entry »